অবিলম্বে লতিফকে গ্রেফতারের দাবী ছাত্রশিবিরের

0
248

logo shibir 01
ঢাকা: ইসলামের অবমাননাকারী লতিফ সিদ্দিকীকে অবিলম্বে গ্রেফতার করে বিচারের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির। সোমবার এক বিবৃতিতে ছাত্রশিবির নেতৃবৃন্দ এ দাবি জানান। যৌথ বিবৃতিতে ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি আব্দুল জব্বার ও সেক্রেটারী জেনারেল আতিকুর রহমান বলেন, মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) ও ইসলামের সুমহান বিধান হজ্বকে নিয়ে কটুক্তিকারী লতিফ সিদ্দিকি দেশে আসলেও তাকে গ্রেফতার না করায় ধর্মপ্রাণ দেশবাসী বিস্মিত ও ক্ষুব্ধ। সরকারের সবুজ সংকেত ছাড়া লতিফ সিদ্দিকি দেশে ফিরতে পারে, এটা কোনভাবেই বিশ্বাসযোগ্য নয়। অবস্থাদৃষ্টে বোঝা যাচ্ছে, লতিফ সিদ্দিকিকে মন্ত্রীত্ব থেকে সরিয়ে দেয়া সরকার ও আওয়ামীলীগের দলীয় পদক্ষেপ ছিল শুধুমাত্র লোক দেখানো। এই ধর্মবিদ্বেষীকে রক্ষা করতেই সরকার তৎপর রয়েছে বলে মনে হচ্ছে।
নেতৃবৃন্দ বলেন, লতিফ সিদ্দিকি নিউইয়র্কে বসে কী বলেছেন, তা বাংলাদেশের জনগণের কাছে পরিস্কার। ঘটনা পরবর্তী সময়ে তিনি যে ধরণের বক্তব্য রেখেছেন তাতেও তার ধর্মবিদ্বেষী মনোভাব স্পষ্ট। আমরা আশা করেছিলাম, সরকার উদ্যোগী হয়ে লতিফকে বাংলাদেশে ফিরিয়ে এনে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করাবে। কিন্তু ঘটনা ঘটলো তার উল্টো। এর দায় সরকারকে অবশ্যই নিতে হবে।
নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, আমাদের বক্তব্য সুস্পষ্ট। অবিলম্বে লতিফ সিদ্দিকিকে গ্রেফতার করে বিচারের ব্যবস্থা করতে হবে। তাকে এমন শাস্তি দিতে হবে যেন ভবিষ্যতে বাংলাদেশে কোন ব্যক্তি এভাবে ইসলামের বিরোধীতা করে বক্তব্য রাখতে না পারে। সরকার যদি দ্রুত পদক্ষেপ না নেয়, তাহলে ধর্মবিদ্বেষীর দোসর হিসাবে সরকারকে অখ্যায়িত করে সারাদেশে একযোগে আন্দোলনের মাধ্যমে এই ধর্মদ্রোহীর বিচার করতে শুধু বাধ্যই করা হবে না, সরকারেরও পতন ঘটানো হবে।
নেতৃবৃন্দ লতিফ সিদ্দিকিসহ ধর্মবিরোধী যে কোন ধরণের কর্মকান্ডে জড়িত ব্যক্তিদের দ্রুততার সাথে বিচারের আওতায় আনতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

Print Friendly, PDF & Email