অ্যাটর্নি জেনারেলের বক্তব্য সংবিধান বিরোধী: জামায়াত

0
210

ঢাকা: রাষ্ট্রের প্রধান আইন কর্মকর্তা ‘কামরুজ্জামানের ফাঁসি কার্যকর করতে পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশের প্রয়োজন নেই’ মর্মে যে বক্তব্য দিয়েছেন তা সংবিধান বিরোধী ও মৌলিক অধিকার পরিপন্থী বলে দাবি করেছে জামায়াতে ইসলামী। বুধবার সন্ধ্যায় গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে দলটির ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল ডা. শফিকুর রহমান এ কথা বলেছেন।
তিনি বলেন, “রাষ্ট্রের প্রধান আইন কর্মকর্তা ‘কামরুজ্জামানের ফাঁসি কার্যকর করতে পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশের প্রয়োজন নেই’ মর্মে যে বক্তব্য দিয়েছেন তা সংবিধান বিরোধী ও মৌলিক অধিকার পরিপন্থী। সংবিধানের ১০৫ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী আপিল বিভাগের যেকোনো রায়ের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির রিভিউ করার অধিকার রয়েছে। দেশের শীর্ষস্থানীয় আইনবিদগণ ইতিমধ্যেই তাদের মতামত ব্যক্ত করে বলেছেন, আপিল বিভাগের প্রদত্ত রায়টি সংখ্যাগরিষ্ঠ মতের ভিত্তিতে। অতএব এখানে রিভিউর সুযোগ থাকা বাঞ্চনীয়।”
অ্যাটর্নি জেনারেল ‘পূর্ণাঙ্গ রায় ছাড়া শর্ট জাজমেন্ট দিয়ে রায় কার্যকর করা যাবে’ মর্মে যে বক্তব্য রেখেছেন তা যথাযথ আইনি প্রক্রিয়া সম্পন্ন না করেই একজন ব্যক্তিকে তড়িঘড়ি করে হত্যা করার ঘোষণা ছাড়া আর কিছু নয়।”
ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল বলেন, “আমরা বারবার বলে আসছি এবং এখনো বলছি, সরকার রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার জন্য সৎ, দেশপ্রেমিক নেতৃবৃন্দকে হত্যার জন্য অস্থির হয়ে পড়েছে। তারই অংশ হিসেবে মিথ্যা মামলায়, মিথ্যা স্বাক্ষ্য দিয়ে জামায়াতে ইসলামীর সিনিয়র সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল মুহাম্মদ কামারুজ্জামানকে দণ্ডিত করে সরকার আইনি প্রক্রিয়া শেষ করার পূর্বেই রায় কার্যকরের নামে জনাব কামারুজ্জামানকে হত্যা করার ষড়যন্ত্র করছে।”
তিন বলেন, আমি সুস্পষ্টভাষায় বলতে চাই, জনাব মুহাম্মদ কামারুজ্জামানের জানার অধিকার রয়েছে আপিল বিভাগ তাদের প্রদত্ত রায়ে কি বলেছেন। সুতরাং পূর্ণাঙ্গ জাজমেন্ট তার হাতে পৌঁছার পর তার রিভিউ আবেদন করার সাংবিধানিক অধিকার প্রয়োগের সুযোগ থাকা উচিত। আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, ন্যায়বিচার নিশ্চিত করা হলে মুহাম্মদ কামারুজ্জামানের রিভিউ আবেদন গৃহীত হবে। দেশের জনগণ এটর্নি জেনারেলের প্রদত্ত বক্তব্য প্রত্যাখ্যান করছে। সবশেষে তিনি জামায়াত নেতৃবৃন্দকে হত্যার ষড়যন্ত্র বন্ধ করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

Print Friendly, PDF & Email