আইনজীবী শিশির-আসাদকে হয়রানি না করার নির্দেশ

0
148

ঢাকা: একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াতে ইসলামীর আমির মাওলানা মতিউর রহমান নিজামী ও সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদের আইনজীবীদের হয়রানি না করার জন্য আপিল বিভাগে ট্রাইব্যুনালের ডিফেন্স টিমের পক্ষ থেকে দুটি আবেদন জানানো হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে আবেদনের পর শুনানি করে চেম্বার বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের আদালত এটি আগামী ২ নভেম্বর পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে শুনানির জন্য পাঠিয়ে দিয়েছে।

একই সঙ্গে আদালত এই সময়ের মধ্যে আইনজীবী শিশির মুহাম্মদ মনিরকে হয়রানি না করতে মৌখিকভাবে আটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমকে আদেশ দিয়েছে। আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন সুপ্রিমকোর্টের সিনিয়র অ্যাডভোকেট মো. নজরুল ইসলাম। আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

পরে আইনজীবী নজরুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, আইনজীবী শিশির মুহাম্মদ মনির এবং আসাদ উদ্দিনকে হয়রানি না করার জন্য আপিল বিভাগে আবেদন জানানো হয়। চেম্বার বিচারপতি সেটি ২ নভেম্বর পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে শুনানির জন্য পাঠিয়েছেন।

তিনি বলেন, আর এই সময়ের মধ্যে আদালত শিশির মনিরকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী যাতে হয়রানি না করে, সে বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে অ্যাটর্নি জেনারেলকে মৌখিকভাবে আদেশ দিয়েছে।

গত ২২ অক্টোবর অ্যাডভোকেট শিশির মনিরের বাসায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা তল্লাশি চালান। অন্যদিকে ঢাকা থেকে সিরাজগঞ্জে বাড়ি যাওয়ার পথে যমুনা সেতুর কাছ থেকে অ্যাডভোকেট আসাদকে ডিবি পরিচয়ে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়।

গতকাল সোমবার আসাদকে ষড়যন্ত্রের অভিযোগে করা একটি মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে দুই দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে অ্যাডভোকেট শিশির মনির আত্মগোপনে রয়েছেন।

এদিকে, শিশির মনিরের স্ত্রী সুমাইয়া শিশির সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, গতকাল সোমবার বিকেল চারটা থেকে সাড়ে চারটার মধ্যে তাদের মোহাম্মদপুরের বাসায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা ফের তল্লাশি চালিয়েছে।

তিনি জানান, এ সময়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা শিশির মনিরের ব্যক্তিগত কম্পিউটার, মনিটর, পেন ড্রাইভ, মডেম ছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ দলিল নিয়ে গেছেন। সুমাইয়া শিশির আরো জানান, কে বা কারা শিশির মনিরের ই-মেইল এবং ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক করেছে। তার নামে আরো ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খুলে সেখানে বিভিন্ন পোস্ট দেওয়া হচ্ছে।

Print Friendly, PDF & Email