আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর নৃশংসতায় লাশের স্তূপ উঁচু হচ্ছে

0
178

Salah Uddin Ahmed
ঢাকা: আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর নৃশংসতায় আন্দোলনকারী নেতাকর্মীদের লাশের স্তূপ উঁচু হচ্ছে হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব সালাহউদ্দিন আহমেদ। সোমবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ অভিযোগ করেন।
সালাহউদ্দিন আহমদে বলেন, প্রতিদিন আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কতিপয় দলবাজ কর্মকর্তার নৃশংসতায় আন্দোলনকারী নেতাকর্মীদের লাশের স্তূপ উঁচু হচ্ছে। গুম-খুন-অপহরণ আর গণগ্রেপ্তারে সারাদেশের অবস্থা বিস্ফোরণোন্মুখ।’
দলবাজ কর্মকর্তাদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘অবৈধ সরকারকে টিকিয়ে রাখার ব্যর্থ চেষ্টা করবেন না। অবৈধ সরকারি আদেশ আপনারা মানতে বাধ্য নন। জনগণের বিপক্ষ শক্তি হিসেবে নিজেদের দাঁড় করাবেন না। বিজাতীয় শত্রুর ভূমিকায় অবতীর্ণ হবেন না।’
বিএনপির মুখপাত্র বলেন, ‘অবৈধ প্রধানমন্ত্রী ক্ষমতা হারানোর আশঙ্কায় উন্মাদ হয়েছেন। উচ্চ আদালত কর্তৃক রং হেডেড উপাধিপ্রাপ্ত শেখ হাসিনা অন্যকে উন্মাদ অভিহিত করা রাজনৈতিক শিষ্টাচার বহির্ভূত ও পাগলের আপন প্রলাপ বলে জাতি মনে করে।’
তিনি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, রাজনৈতিক সংকটের কারনে সৃষ্ট পরিস্থিতির দায় সম্পূর্ণভাবে অবৈধ ক্ষমতাসীনদেরকেই নিতে হবে। ভুয়া নির্বাচনের মাধ্যমে জবরদস্তি করে ক্ষমতায় থাকার স্বপ্নসাধ গণআন্দোলনে ধূলিস্যাত হয়ে যাবে শিগগিরই।
সালাহউদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘বুদ্ধিবৃত্তিক আলস্য বা প্রতিবন্ধিত্বের কারণে আওয়ামী লীগ নেত্রীর নিজের সৃষ্ট রাজনৈতিক সংকটকে আইন-শৃঙ্খলা সমস্যা হিসাবে আখ্যায়িত করাকে জাতি প্রধানমন্ত্রীর মানসিক বৈকল্য ছাড়া আর কিছুই মনে করে না।’
‘তিনি ইদানিং প্রায়শই বলে থাকেন- জনগণের জানমালের নিরাপত্তার জন্য যা যা করার দরকার তিনি তাই করবেন। সমগ্র জাতি আজ আপনার ও আপনার সরকারের পদত্যাগ চায়, আপনি দয়া করে এই কাজটি করলেই জনগণের জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিত হবে বলে গোটাজাতি মনে করে’ যোগ করেন তিনি।
তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর সমালোচনা করে বিএনপি মুখপাত্র বলেন, ‘গণবাহিনীর সাবেক অধিনায়ক হটকারী বিপ্লবী ইনু সাহেবরা মুজিব হত্যার স্বঘোষিত পরিকল্পনাকারী ও মুজিব হত্যার পরবর্তীতে মোটর শোভাযাত্রার মাধ্যমে নৃত্য উল্লাস করে বর্তমানে মুজিব ভক্তের খাতায় নাম লিখিয়েছেন।’
তিনি বলেন, ‘এ জাতীয় রাজনৈতিক বারবনিতা ও দানবের কাছে জাতি মানবীয় সবক শুনতে চায় না। আপনার সারমেয় বাক্যবাণ বন্ধ করুন, জাতির কাছে অতীত কর্মকাণ্ডের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করুন।’
সালাহউদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘শেখ হাসিনার গণতন্ত্রে বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বীর উত্তমের ফুটপাথেও বসার অধিকার নেই। ভিন্নমত পোষণকারীদের বিরুদ্ধে দলননীতি অবলম্বন করাই আওয়ামী রাজনীতির রোডম্যাপ।’
এ সময় তিনি বলেন, ‘আমরা বারবারই বলে আসছি- সরকার পেট্রোল বোমা হামলাসহ বিভিন্ন নাশকতার ষড়যন্ত্র বাস্তবায়নের মাধ্যমে সরকারবিরোধী গণআন্দোলনকে কলুষিত করে বিরোধীদলীয় আন্দোলনকারী নেতাকর্মীদের ওপর এর দায় চাপিয়ে আন্দোলনকে নস্যাৎ করতে চায়।’
বিএনপি মুখপাত্র অভিযোগ করেন, ‘সরকার পরিচালিত ও প্রযোজিত একই রকম নাটকের অংশ হিসেবে রবিবার চট্টগ্রামের আগ্রাবাদ এলাকার যুবলীগের কার্যালয় থেকে বিপুল পরিমাণ পেট্রোল বোমা উদ্ধার করা হয়েছে যার সচিত্র প্রতিবেদন আজ বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে। জাতির কাছে এটা পরিস্কার যে, এ সব নাশকতার সঙ্গে কারা জড়িত।’
গণতন্ত্র মুক্তি আন্দোলনের বিজয় অর্জিত না হওয়া পর্যন্ত চলমান অনির্দিষ্টকালের শান্তিপূর্ণ অবরোধ কর্মসূচির পাশাপাশি চলমান সর্বাত্মক হরতাল শান্তিপূর্ণভাবে পালন করার আহ্বান জানান তিনি।

Print Friendly, PDF & Email