আওয়ামীলীগ নেতা নিজের এক কর্মীর গায়ে ঢেলে দিলেন গরম তেল, অবস্থা সঙ্কটাপন্ন

0
125

নিউজ ডেস্ক: নিষ্ঠুর আর নির্দয় এক আওয়ামী লীগ নেতা নিজের দলের এক কর্মীর গায়ে ঢেলে দিলেন গরম তেল। মুহূর্তেই ওই কর্মীর শরীর ঝলসে গিয়ে মৃত্যু যন্ত্রণায় মাটিতে লুটিয়ে পড়লে দগ্ধ ওই কর্মীকে ভর্তি করা হয়েছে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে। সাজু নামের ওই কর্মীর অবস্থা এখন সঙ্কটাপন্ন। মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে রাজশাহী মহানগরীর বুথপাড়ায় মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০ টার দিকে। গুরুতর দগ্ধ সাজু হোসেন (৩৬) এলাকার সাজ্জাদ হোসেনের ছেলে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ জানিয়েছে রাত সাড়ে ১০টার দিকে নগরীর বুথপাড়া এলাকার এক হোটেলে বসে গল্প করছিলেন ৩০ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি রাব্বেল হোসেন। এসময় আওয়ামী লীগ কর্মী সাজুর সঙ্গে রাব্বেলের তর্কবিতর্ক থেকে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে আওয়ামী লীগ নেতা রাব্বেল হোটেলের কড়াইতে ফুটন্ত তেল মগ ভর্তি করে সাজুর শরীরে ঢেলে দেয়। যন্ত্রণায় ছটফট করতে করতে সাজু হোসেন মাটিতে লুটিয়ে পড়েন।

এদিকে কর্মীর শরীরে গরম তেল ঢেলে দিয়েই আওয়ামী লীগ নেতা রাব্বেল দৌড়ে পালিয়ে আত্মগোপন করেন। এই সময় সাজুকে উদ্ধার করে এলাকাবাসী রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে ভর্তি করে।

রামেক হাসপাতালের চিকিৎসকরা জানান, সাজুর অবস্থা মারাত্মক। গরম তেলে তার কোমর থেকে শরীরের  ওপরের পুরোটাই পুড়ে গেছে। সাজুকে মরণাপন্ন অবস্থায় বাঁচানোর চেষ্টা করছেন বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। এদিকে ঘটনার খবর পেয়ে মতিহার থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলেও রাব্বেলকে আটক করতে পারেনি।

জানা গেছে,  রাজশাহী নগরীর ৩০ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি রাব্বেল হোসেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের ব্যক্তিগত সহকারি।

এদিকে সাজুর শরীরের গরম তেল ঢেলে দিয়ে পুড়িয়ে হত্যাচেষ্টার ঘটনায় এলাকায় চরম ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। জনরোষ থেকে বাঁচতে আ’লীগ নেতা রাব্বেল গা ঢাকা দিয়েছে বলে জানিয়েছে স্থানীয়রা।

Print Friendly, PDF & Email