আওয়ামী লীগ ১০টির বেশি আসন পেলে রাজনীতি ছেড়ে দেব: ফখরুল

0
170

Fokhrul 01
ঢাকা: বর্তমান সরকারকে বিশ্বের সর্বনিকৃষ্ট স্বৈরাচার হিসেবে অভিহিত করে তাদের প্রতি নির্বাচনের চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি ঘোষণা দিয়েছেন, এখন জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ১০টির বেশি আসন পেলে তিনি রাজনীতি ছেড়ে দেবেন। শহীদ ডা. শামসুল আলম খান মিলনের ২৪তম শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জাতীয় প্রেস ক্লাবে নব্বইযের ডাকসু ও সর্বদলীয় ছাত্রঐক্যের এক আলোচনা সভায় এ ঘোষণা দেন তিনি।
ফখরুল বলেন, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট নিয়ে খালেদা জিয়ার নামে দুটি মিথ্যা মামলা রয়েছে। তার পক্ষে উচ্চ আদালত যে রায় দিয়েছেন তাতে আমরা হতাশ। এ রায়ে প্রমাণ হয় দেশে দুই ধরনের বিচারব্যবস্থা বহাল রয়েছে।
সরকার আবার ১/১১ পরিস্থিতি সৃষ্টির পাঁয়তারা করছে, এমন অভিযোগ করে মির্জা ফখরুল বলেন, সরকার ১/১১ পরিস্থিতি সৃষ্টি করে খালেদা জিয়াকে রাজনীতি থেকে দূরে সরিয়ে রাখার নীলনকশা করছে।
বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব বলেন, দেশে এমন কোনো ইউনিয়ন নেই যেখানে বিরোধী দলের নেতাদের নামে একাধিক মামলা নেই। প্রতিটি জেলায় কম হলেও চার থেকে পাঁচজন নেতা খুন হয়েছেন।
পৃথিবীর সর্বনিকৃষ্ট স্বৈরাচারকে বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার হার মানিয়েছে বলেও মন্তব্য করেন বিএনপির এই মুখ্যপাত্র। সরকারের উদ্দেশে তিনি বলেন, সাহস থাকলে এখন নির্বাচন দিন। আপনারা ১০টির বেশি আসন পাবেন না। যদি পান তাহলে আমি রাজনীতি ছেড়ে দিব।
ছাত্রনেতাদের উদ্দেশে বিএনপির মির্জা ফখরুল বলেন, সব ষড়যন্ত্র উপড়ে ফেলে দেশ রক্ষায় আপনাদের এগিয়ে আসতে হবে। সবার দায়িত্ব আপনাদের কাঁধে তুলে নিতে হবে।
বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও নব্বইয়ের ডাকসু সভাপতি আমানউল্লাহ আমানের সভাপতিত্বে সভায় আরো বক্তব্য দেন তৎকালীন ছাত্রনেতারা। তারা হলেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শামসুজ্জামান খান দুদু, বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. আসাদুর জামান রিপন, শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক ও নরসিংদী জেলা বিএনপির সভাপতি খায়রুল কবির খোকন, নির্বাহী কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email