আদালতের বিরুদ্ধে এ হরতাল: হাছান মাহমুদ

0
610

Dr. hasan mahmud 03
ঢাকা: জামায়াতে ইসলামীর চলমান হরতাল আদালতের বিরুদ্ধে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ। জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত এক প্রতিবাদ সমাবেশে মঙ্গলবার দুপুরে তিনি এ সব কথা বলেন।
হাছান মাহমুদ বলেন, ‘কামারুজ্জামানের ফাঁসির আদেশ সরকার নয় আদালত দিয়েছেন। আদালতের আদেশের বিরুদ্ধে যে হরতাল তা আদালতের বিরুদ্ধে।’
এই হরতাল আদালত অবমাননাকর বলে অভিহিত করে তিনি বলেন, ‘আদালত অবমাননার জন্য যদি পুলিশের আইজিপির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয় তাহলে আজ যারা আদালতের বিরুদ্ধে হরতাল ডেকেছে তাদের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগ আনা হোক। আদালত অবমাননার জন্য শাস্তির বিধান করা হোক।’
সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি-জামায়াতের হরতাল এখন কৌতুকে পরিণত হয়েছে। মানুষ হরতালে সাড়া দেয়নি। প্রত্যেক যুদ্ধাপরাধীর বিচার করা হবে। আওয়ামী লীগ এ বিষয়ে বদ্ধপরিকর।’
বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘যুদ্ধাপরাধীর প্রধান পৃষ্ঠপোষক খালেদা জিয়া ৯২ দিন পর বাড়ি থেকে বেড়িয়ে ছেলের কবরে গিয়ে কেঁদেছেন। তিনি বাংলাদেশের জনগণের কাছে নিঃশর্ত আত্মসমপর্ণ করেছেন। তিনি আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনার কাছেও নিঃশর্ত আত্মসমপর্ণ করেছেন।’
খালেদা জিয়ার উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘৯২ দিনে পেট্রোলবোমা মেরে যে মানুষ হত্যা করেছেন, তাদের প্রত্যেকের পরিবারের কাছে গিয়ে ক্ষমা চান। কান্নাকাটি করেন। কারণ এ সব হত্যাকাণ্ডের জন্য আপনি দায়ী। ১৬৭ জন মানুষ হত্যার হুকুমদাতা হিসেবে আপনার বিচার করা হবে।’
এ সময় হরতাল-অবরোধে নাশকতাকারী ও হুকুমদাতাদের আইনের আওতায় আনার বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কোনো শৈথিল্য সহ্য করা হবে না বলেও হুঁশিয়ার করেন তিনি।
চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র প্রার্থী মনজুর আলমের সমালোচনা করে এই আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, ‘পৃথিবীর কোনো নির্বাচনী আচরণবিধিতে লেখা নেই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর ব্যর্থতা তুলে ধরা যাবে না। মনজুর আলম মেয়র থাকাকালীন অনিয়ম ঢাকার জন্যই আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন। আমি যা করেছি তা নির্বাচন আচরণবিধির লঙ্ঘন করা নয়।’
প্রতিবাদ সমাবেশে উপস্থিত মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেন, ‘কামারুজ্জামানের ফাঁসির আদেশ দেওয়ায় আদালতের প্রতি মানুষের আস্থা বেড়েছে।’
সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক অরুণ সরকার রানার সভাপতিত্বে সমাবেশে আরও উপস্থিত ছিলেন- আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য সুজিত রায় নন্দী, হাজী মোহাম্মদ সেলিম, বলরাম পোদ্দার প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email