আবাসনে টাকার উৎসের খোঁজ নেবে না সরকার: মোশাররফ হোসেন

0
207

Mosharaf Hosen
ঢাকা: আবাসন খাতে টাকা কোথায় থেকে এলো তা জানতে চাইবে না সরকার। এ জন্য একটি নীতিমালাও তৈরি করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন।
তিনি বলেন, ‘আমরা এমন একটা নীতিমালা করতে যাচ্ছি যে, যাতে কেউ এখানে বিনিয়োগ করলে তার টাকা কোথায় থেকে এলো এ নিয়ে কেউ কথা বলতে না পারে। কারণ বাইরের দেশে এ খাতে কেউ টাকা দিলে তাদেরকে সে দেশের সরকার কিছুই জিজ্ঞাস করে না।’ মালয়েশিয়ার সঙ্গে ৮ হাজার ফ্ল্যাট নির্মাণ কাজ চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে বলেও জানান মন্ত্রী।
বুধবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ৫ দিনব্যাপী রিহ্যাবের শীতকালীন মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা জানান।
দেশের আবাসন খাত বিকাশে ২০ হাজার কোটি টাকার একটা প্রণোদনা প্রয়োজন উল্লেখ করে মন্ত্রী মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘বিষয়টি নিয়ে আমরা চিন্তাভাবনা করছি। আগামী ২৮ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমার মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে আসবেন। তখন তাকে এটা অবহিত করবো।’
বস্তিবাসীর আবাসন সমস্যায় সরকার কাজ করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘মানুষের মৌলিক চাহিদার মধ্যে বাসস্থান একটি। বস্তিবাসী ঘর ভাড়া নিয়ে যে টাকা পরিশোধ করে, তাতে দেখা গেছে ২০ বছরে ওই টাকা দিয়ে সে একটি ফ্ল্যাটের মালিক হতে পারে। বিষয়টি চিন্তা করে আমরা এরই মধ্যে রাজধানীর মিরপুর ও খুলনায় স্বল্পমূল্যে ফ্ল্যাটের ব্যবস্থা করতে যাচ্ছি। এর মধ্যমে তারা প্রতিদিন ১৭৫ টাকা করে জমা দিয়ে ২০ বছরে একটি ফ্ল্যাটের মালিক হতে পারবে।’
মন্ত্রী বলেন, ‘রিহ্যাব বলছে তাদের ১০ হাজার ফ্ল্যাট এখনো অবিক্রিত। এটা আসলে কিছুই না। আমরা আগামী চার বছরে এক লাখ ফ্ল্যাট নির্মাণ করবো। এরই মধ্যে ১৮ হাজার ফ্ল্যাট নির্মাণ করা হয়েছে। এ ফ্ল্যাটগুলোও তো আমরা বিক্রি করবো।’
রিহ্যাব সভাপতি আলমগীর সামছুল আল আমীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। আরো ছিলেন রিহ্যাব সহ-সভাপতি লিয়াকত আলী ভুঁইয়া, রবিউল হক, কামাল চৌধুরী প্রমুখ।
এদিকে গত ২০ ডিসেম্বর জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে রিহ্যাব জানায়, তাদের এবারের শীতকালীন মেলায় ১৫০টি স্টল থাকছে। পাশাপাশি কো-স্পন্সর হিসেবে রয়েছে ১৩টি প্রতিষ্ঠান। রিহ্যাব ফেয়ারে প্রবেশমূল্য সিঙ্গেল ৫০ ও মাল্টিপল এন্ট্রি ১০০ টাকা। প্রবেশ টিকিটে থাকবে র্যা ফেল ড্র এবং ৪২ ইঞ্চি এলইডি টিভিসহ আকর্ষণীয় বিভিন্ন পুরস্কার। মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত চলবে।

Print Friendly, PDF & Email