আমরা বন্ধ শিল্প কারখানা খুলে দিচ্ছি: শিল্পমন্ত্রী

0
163

Amu 02
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: দেড়শ কোটি টাকার লোকসানের বোঝা ও ৫২ কোটি টাকার চিনি অবিক্রিত রেখে শুক্রবার সকালে ঝিনাইদহের মোবারকগঞ্জ চিনিকলের (মোচিক) ২০১৪-১৫ মাড়াই মৌসুমের উদ্বোধন করা হয়েছে। শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু শুক্রবার সকাল পৌনে ১১টায় ডোঙ্গায় আখ ফেলে মাড়াই কাজের উদ্বোধন করেন। এ বছর এক লাখ ত্রিশ হাজার আখ মাড়াই করে নয় হাজার সাতশ পঞ্চাশ মেট্রিক টন চিনি উৎপাদনের লক্ষমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে আয়োজিত এক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনার, ঝিনাইদহের জেলা প্রশাসক মোঃ শফিকুল ইসলাম, বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য করপোরেশনের চেয়ারম্যান মাহমুদউল হক ভূইয়া, কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মনোয়ার হোসেন মোল্লা, মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো: দেলোয়ার হোসেন, শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মসিউর রহমান স্বপন ও সাধারণ সম্পাদক কাজী সেলিমসহ আখ চাষিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
শিল্পমন্ত্রী বলেন, আমেরিকা যখন শ্রমিক ছাটাই করে শিল্প কারখানা সংকুচিত করছে, তখন আমরা শিল্প প্রতিষ্ঠানে নতুন নতুন শ্রমিক নিয়োগ দিচ্ছি ও বন্ধ শিল্প কারখানা খুলে দিচ্ছি। তিনি আরো বলেন, ২০৪১ সালের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে একটি উন্নত বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে আমরা কাজ করছি। আমরা ৭০ ভাগ মানুষকে শিক্ষার আওতায় নিয়ে এসেছি।
তিনি বিএনপির জামায়াতের কঠোর সমালোচনা করে মন্ত্রী বলেন, তাদের আন্দোলন মানেই গনহত্যা, শিশুহত্যা, অগ্নিসংযোগ ও লুটপাট। এ জন্য দেশের মানুষ আর বিএনপি জামায়াতের আন্দোলনে সাড়া দেয় না। শিল্পমন্ত্রী বলেন, বিএনপি চেয়েছিল সংসদ নির্বাচন বাতিল করে এদেশে জঙ্গীবাদ প্রতিষ্ঠা করতে। কিন্তু আমরা নির্বাচন দিয়ে দেশে গনতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছি। এ সরকার গনতান্ত্রিক বলেই বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় আমরা দুইটি আর্ন্তজাতিক পদ পেয়েছি। মোবারকগঞ্জ চিনিকলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক দেলোয়ার হোসেন জানান ২০১৪-১৫ আখ মাড়াই মৌসুমে কার্যদিবস ধরা হয়েছে ১২০। চিনি আহরণের হার ৭.৫০। তিনি আরো জানান, মোবারকগঞ্জ চিনিকলে বর্তমান গত তিন বছরের তের হাজার তিনশ মেট্রিক টন চিনি মজুদ রয়েছে। যার মুল্য প্রায় ৫২ কোটি টাকা। চিনি অবিক্রিত থাকায় মিলের গোডাউনে ধারন ক্ষমতা নেই। এদিকে শ্রমিক নেতা মসিউর রহমান স্বপন জানান, মিলের শ্রমিক কর্মচারীদের দুই মাসের বেতন বকেয়া রয়েছে। দীর্ঘদিন চিনি গোডাউনে পড়ে থাকায় চিনির গুনগত মান নষ্ট হচ্ছে।

Print Friendly, PDF & Email