আমি নিজেকে এ দেশের মানুষের সেবক হিসেবেই গণ্য করি: প্রধানমন্ত্রী

0
112
ফাইল ছবি

ঢাকা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমি নিজেকে এ দেশের মানুষের সেবক হিসেবেই গণ্য করি, প্রধানমন্ত্রী- এটা তো সাময়িক পদ। কিন্তু মানুষকে সেবা করা, মানুষের সেবক হয়ে থাকা সব থেকে বড় কাজ। সেটাই আমি করবার চেষ্টা করি। শুভ বড়দিনকে সামনে রেখে বাংলাদেশ খ্রিষ্টান অ্যাসোসিয়েশনের একটি প্রতিনিধি দলের মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ​করতে গেলে শেখ হাসিনা কথাগুলো বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমার চাওয়া-পাওয়ার কিছু নেই। আমার বাবা সারা জীবন এ দেশের মানুষের জন্যই সংগ্রাম করেছেন। মানুষের মুক্তির জন্য সংগ্রাম করেছেন। তিনি স্বাধীনতা দিয়ে গেছেন। একটি স্বাধীন রাষ্ট্র কীভাবে গড়ে উঠবে এটা তাঁর স্বপ্ন ছিল। তাঁর বড় সন্তান হিসেবে সেই স্বপ্নের কথা কিছুটা অবশ্যই আমার জানার সৌভাগ্য হয়েছে। তাই যখনই রাষ্ট্র পরিচালনার সুযোগ পেয়েছি, আমি নিজেকে এ দেশের মানুষের সেবক হিসেবেই গণ্য করি। প্রধানমন্ত্রী, এটা তো সাময়িক পদ। কিন্তু মানুষকে সেবা করা, মানুষের সেবক হয়ে থাকা সব থেকে বড় কাজ। সেটাই আমি করবার চেষ্টা করি। শেখ হাসিনা বলেন, প্রত্যেকে একে অপরের ধর্মের প্রতি সম্মান দেখাবে। এটা হচ্ছে মূল শিক্ষা। মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার চেতনা। সকল ধর্মের অমর বাণী হচ্ছে শান্তি। সেই শান্তি আমরা চাই। বাংলাদেশ একটি শান্তিপূর্ণ দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা লাভ করুক, উন্নত ও সমৃদ্ধিশালী হোক—সেটাই আমাদের লক্ষ্য। তিনি বলেন, যিশুখ্রিষ্ট সব সুখ, ত্যাগ ও ভোগ ত্যাগ করেছেন মানবকল্যাণে। ক্ষুধার্ত, রোগ ক্লিষ্ট মানুষের সেবা তিনি করেছিলেন। মানবতাকেই সব থেকে বড় করে তিনি দেখেছিলেন। শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের দেশে খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের যাঁরা রয়েছেন, প্রতি বছর আপনারা বড়দিনের উৎসব পালন করেন এবং এই উৎসব উদ্‌যাপন করেন। এই উৎসবে আমরা সকলেই শরিক হতে চাই এবং শরিক হই।

Print Friendly, PDF & Email