ইজতেমার পর বিএনপি নেতাদের খুঁজে পাওয়া যাবে না: বাণিজ্যমন্ত্রী

0
234

Tufayel 02
ঢাকা: বিশ্ব ইজতেমার পর বিএনপি নেতাদের বাটি চালান দিয়েও খুঁজে পাওয়া যাবে না বলে মন্তব্য করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। রবিবার সচিবায়লয়ে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ওয়ার্ল্ড ট্রেড অর্গানাইজেশন (ডব্লিউটিও)-সংক্রান্ত কার্যাবলী পর্যালোচনা ও পর্যবেক্ষণ কমিটির বৈঠক শেষে তিনি সাংবাদিকদের সামনে এ মন্তব্য করেন। তোফায়েল আহমেদ বলেন, অবরোধের নামে যারা গুপ্ত হামলা করছে, নাশকতা করছে, গাড়িতে আগুন দিচ্ছে, তাদের বাটি চালান দিয়েও খুঁজে পাওয়া যাবে না। একটু অপেক্ষা করুন, বিশ্ব ইজতেমার পর তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
তিনি কঠোর হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, কাউকেই ছাড় দেওয়া হবে না। অবরোধ বলতে যা বোঝায় তা নেই। এখানে যা হচ্ছে তা হলো গুপ্ত হামলা ও জঙ্গি তৎপরতা। দেশে চলমান অবরোধের মাঝেও হাজার হাজার গাড়ি চলছে দাবি করে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেন, দুই একটি গাড়ি পোড়ালে তা মিডিয়ায় বড় করে দেখানো হয়। রাতের বেলা গুপ্ত হামলা হয় এটা বন্ধ করতে আমরা বদ্ধপরিকর। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, কাদের সঙ্গে সমঝোতা করবো? যারা পেট্রলবোমা মারে, গাড়ি পোড়ায় তাদের সঙ্গে? সমঝোতা হবে ২০১৯ সালে। এর আগে নয়।
মন্ত্রী বলেন, কিভাবে গুপ্ত হামলা বন্ধ করতে হয় তা আপনারা দেখবেন। বিএনপির নেতারা তো মাঠে নেই। বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) এর বরাত দিয়ে মন্ত্রী জানান, ৯ জানুয়ারি রাত ১০টা থেকে ১০ জানুয়ারি রাত ১০টা পর্যন্ত বিভিন্ন রুটে ৯ হাজার ৯০০ যানবাহন চলাচল করেছে। তিনি বলেন, বিশ্ব ইজতেমা আমাদের দেশে হজের পরই বড় জামায়াত। আজকে আখেরি মোনাজাত। কিন্তু তাতেও তারা কোনো ছাড় দেয়নি।
মন্ত্রী বলেন, এখন অ্যাবস্যুলেটলি দেশের অবস্থা নরমাল। কিন্তু রাতের বেলা বোমা হামলা হয়। এগুলো আন্দোলন নয়। আন্দোলন আমরা করেছি। একটা টাইমের পর সচিবালয়ের লোকজনদের আর ধরে রাখতে পারেনি। তারা সবাই পল্টনে চলে গিয়েছিল। খালেদা-অমিত ফোনালাপ নিয়ে তিনি বলেন, বিজেপি প্রধান অমিত শাহ বেগম জিয়াকে ফোন করেননি, তারপরও মারুফ কামাল খান বলে যাচ্ছেন তিনি ফোন করেছিলেন। এরকম অসত্য বলে তারা কী রাজনীতি করবে? বিএনপি চেয়ারপারসন বাসায় যেতে পারেননি এমন এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, তিনি (খালেদা) যেতে পারেন, কিন্তু যান না। অরাজকতার জন্য সেখানে অবস্থান করছেন। অরাজকতা করবে, কিন্তু লাভ হবে না। ইজতেমার পর কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সব থেমে যাবে।

Print Friendly, PDF & Email