একাদশ শ্রেণীতে ভর্তির দ্বিতীয় মেধা তালিকা প্রকাশ

0
117

ঢাকা: একাদশ শ্রেণীতে ভর্তির দ্বিতীয় মেধা তালিকা আজ সোমবার সন্ধ্যায় প্রকাশ করা হয়েছে। আন্তঃবোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটির আহবায়ক ও ঢাকা বোর্ড চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবু ব্ক্কর ছিদ্দিক আজ সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় দ্বিতীয় মেধা তালিকা প্রকাশের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তবে, তখনও বোর্ডের ওয়েবসাইটে মেধা তালিকা প্রদর্শন শুরু হয়নি। তিনি জানান, ইফতারির পর পরই ওয়েবসাইটে দেখা যাবে।

দ্বিতীয় মেধা তালিকায় ১৭ হাজার ৬৪৭ জন শিক্ষার্থীকে কলেজে ভর্তির মনোনীত করেছে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড। এই তালিকায় নতুন করে ১০ হাজার ৭২৬ জন এবং মাইগ্রেশনের মাধ্যমে ছয় হাজার ৬৪৭ জন শিক্ষার্থীকে ভর্তির জন্য মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। মনোনীত শিক্ষার্থীদের আগামীকাল মঙ্গলবার ও আগমী বুধবার এ দু’দিনের মধ্যে কলেজে ভর্তি হতে হবে।

এ প্রসঙ্গে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক ড. আশফাকুস সালেহীন জানান, ওয়েবসাইটে (www.xiclassadmission.gov.bd) এই তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। দ্বিতীয় মেধা তালিকায় নতুন করে ১০ হাজার ৭২৬ জন এবং মাইগ্রেশনের মাধ্যমে ছয় হাজার ৬৪৭ জনসহ মোট ১৭ হাজার ৬৪৭ জন শিক্ষার্থী ভর্তির জন্য মনোনয়ন দেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, আবেদন করার সময় অনেক শিক্ষার্থী পছন্দের তালিকায় পাঁচটি কলেজকে না রাখায় অনেকেই প্রথম দফার মেধা তালিকায় বাদ পড়ে যায়। কিছু সমস্যা থাকলেও এখন মোটামুটি সব ঠিক হয়েছে। সব শিক্ষার্থীই কলেজে ভর্তি হতে পারবে।

কারিগরি জটিলতা দেখা দেয়ার নির্ধারিত সময়ের চারদিন পর গত ২৮ জুন মধ্যরাতে একাদশ শ্রেণীতে ভর্তির জন্য প্রথম মেধা তালিকা প্রকাশ করা হয়। ওই তালিকায় হাজারো ভুলের কারণে কলেজে গিয়ে বিড়ম্বনায় পড়তে হয়েছে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের।
নতুন পদ্ধতিতে এ বছর ১১ লাখ ৫৬ হাজার শিক্ষার্থী একাদশে ভর্তিতে আবেদন করে। সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী প্রথম মেধা তালিকার নয় লাখ ২৩ হাজার ১০৫ জনের ভর্তি সম্পন্ন হয়েছে। শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের বিড়ম্বনা ও হয়রানীর জন্য শিক্ষা মন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ দুঃখ প্রকাশ করে পুরো বিষয়টিকে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখার অনুরোধ জানিয়েছেন গত পরশু।

এদিকে, আন্তঃবোর্ড সমন্বয়কারী ঢাকা শিক্ষা বোর্ড জানিয়েছে, যেসব শিক্ষার্থী ভর্তি হবে না বা কোনো কলেজে ভর্তির জন্য নির্বাচিত হবে না তাদেরকে রিলিজ স্লিপধারী হিসেবে বিবেচনা করা হবে। তারা খালি আসনের বিপরীতে অনলাইনে সর্বোচ্চ পাঁচটি কলেজের পছন্দক্রম দিয়ে ৯ থেকে ১০ জুলাইয়ের মধ্যে আবেদন করবে। এক্ষেত্রে কোনো আবেদন ফি দিতে হবে না। রিলিজ স্লিপধারী প্রার্থীদের আবেদনের ফল ১২ জুলাই প্রকাশ করা হবে। যেসব শিক্ষার্থী পূর্বে অনলাইন বা এসএমএসের মাধ্যমে আবেদন করেনি সেসব শিক্ষার্থী কলেজের শূন্য আসন দেখে ১৩ থেকে ২১ জুলাইয়ের মধ্যে অনলাইনে নির্দিষ্ট আবেদন ফির মাধ্যমে পাঁচটি কলেজের পছন্দক্রম দিয়ে আবেদন করতে পারবে। নতুন আবেদনকারীদের ফলাফল আগামী ২৩ জুলাই প্রকাশ করা হবে। নতুন আবেদনকারীদের ২৫ ও ২৬ জুলাই ভর্তি হতে হবে।

Print Friendly, PDF & Email