কবর থেকে মাহজাবিনের লাশ উত্তোলন

0
140

Mehjabin
যশোর প্রতিনিধি: দীর্ঘ ২১ দিন পর যশোরের সাবেক এমপি খান টিপু সুলতানের পুত্রবধূ ডা. শামারুখ মাহজাবিনের লাশ কবর থেকে তোলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার দিকে লাশ শহরের কারবালা কবরস্থান থেকে উত্তোলন করা হয়। এসময় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুস সালাম, যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের প্রভাষক ডাঃ হুসাইন সাফায়াত, ডাঃ জেসমিন সুমাইয়া, মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক নোয়াব আলী, সিআইডির এএসপি মুন্সি রুহুল হক, যশোর কোতয়ালী থানার ওসি ইনামুল হক, ডাঃ শামারুখের পিতা প্রকৌশলী নুরুল ইসলামসহ পরিবারের আতœীয় স্বজনরা উপস্থিত ছিলেন। লাশ উত্তেঅলনের পর ময়না তদন্তের জন্য যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে কোতয়ালী থানার ওসি জানিয়েছেন।
এদিকে ডাঃ শামারুখের ময়নাতদন্ত করার জন্য ৪ সদস্যের একটি মেডিকেল টিম গঠন করা হয়েছে। যশোর আড়াইশ’ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের আরএমও ডাঃ শামসুল আলম দুদুলের নেতৃত্বে টিমের অন্যান্য সদস্যরা হচ্ছেন মেডিকেল কলেজের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডাঃ অধ্যাপক নাজমুল হুদা, ফরেনসিক বিভাগের প্রভাষক ডাঃ হুসাইন সাফায়াত ও জেনারেল হাসপাতালের ডাঃ আলমগীর হোসেন।
প্রসঙ্গত, গত ১৩ নভেম্বর রাজধানীর ধানমন্ডি এলাকার বাসভবনে গলায় ফাঁস দেয়া অবস্থায় ডা. শামারুখ মাহজাবিনকে উদ্ধার করা হয়। ১৪ই নভেম্বর ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ডাঃ শামারুখ মাহাজাবিনের লাশের ময়না তদন্ত সম্পন্ন হয়। ২৩ নভেম্বর প্রকাশিত ময়না তদন্ত রিপোর্টে ডা. মাহজাবিন আত্মহত্যা করেছেন বলে বলা হয়।
ঢামেকের ময়না তদন্ত রিপোর্ট চ্যালেঞ্জ করে গত ২৫শে নভেম্বর মঙ্গলবার প্রকৌশলী নূরুল ইসলাম আদালতের শরণাপন্ন হন। ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট বিকাশকুমার সাহা ওই দিনই ডা. মাহজাবিনের লাশ উত্তোলন করে আবার ময়না তদন্তের নির্দেশ দেন যশোরের সিভিল সার্জনকে। আদালতের নির্দেশ মেনে আজ যশোর কারবালা কবর স্থান থেকে ২১ দিন পর ডাঃ শামারুখ মাহাজাবিনের লাশ উত্তোলন করে ফের ময়না তদন্ত করা হচ্ছে।

Print Friendly, PDF & Email