কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে সরকার ব্যর্থ হওয়ায় মানবপাচার হচ্ছে: বিএনপি

0
243

Logo bnp 01
ঢাকা: সরকার কর্মসংস্থান সৃষ্টি করতে ব্যর্থ হওয়ায় দেশে মানবপাচার বেড়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি। রোববার দুপুরে নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচ তলায় নাসির উদ্দিন আহামেদ পিন্টুর আত্মার মাগফিরাত কামনায় যুবদল কর্তৃক আয়োজিত মিলাদ মাহফিলে তিনি এসব কথা বলেন।
বিএনপির আন্তর্জাতিকবিষয়ক সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন বলেছেন, দেশে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা না থাকায় মানুষ বাধ্য হয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সাগর পাড়ি দিয়ে বিদেশ যাচ্ছে। আর এতে করে তারা দালালদের খপ্পরে পরে জীবন ও সম্পদ সবই হারাচ্ছে।
তিনি বলেন, কে কতটুকু দায়ী তা বিবেচনা না করে দেশের সকল রাজনৈতিক দলকে কার্যকর সমঝোতায় আসার জন্য সংলাপ দরকার। কারণ গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনা না গেলে দেশ একদলীয় শাসন ব্যবস্থার দিকে চলে যাবে ।
বিএনপির মুখপাত্র বলেন, ‘‘ আমরা এক ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছি। গণতন্ত্র আজ খাদের কিনারায় এসে দাঁড়িয়েছে। এই থেকে উত্তরণে সরকার ও বিরোধী দলের মধ্যে কার্যকর সংলাপ জরুরী।’’
গত ৩ মে রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে পিন্টু হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। বিএনপির অভিযোগ, কারা কতৃর্পক্ষের অবহেলার কারণে পিন্টুর মৃত্যু হয়েছে।
আসাদুজ্জামান রিপন অভিযোগ করে বলেন, ‘‘দেশে আজ হিংসা ও ধ্বংসের রাজনীতি চলছে। বিরোধী দলের ওপর চালানো হচ্ছে নিপীড়ন-নিযার্তন। সরকার যদি মনে করে, তারা প্রতিপক্ষকে ধ্বংস কিংবা নির্মূল করে টিকে থাকবে। নিবার্চনে বিরোধী মতকে জিততে দেবে না। এসব করলে কিভাবে দেশে গণতন্ত্র থাকবে?”
‘‘এখন জাতীয় নিবার্চন দূরে থাক, স্থানীয় সরকার নিবার্চন নিয়েও জাতীয় সংঘসহ আন্তর্জাতিক মহল প্রশ্ন তুলেছে। এটা আমাদের জন্য সন্মানজনক নয়।’’
সরকারের প্রতি আহবান রেখে তিনি বলেন,‘‘ বিভেদ ওপ্রতিহিংসা ভুলে গিয়ে দেশে যে অনিশ্চিত অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে, তা থেকে উত্তরণে দ্রুত কার্যকর সংলাপে বসুন। শুধু ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য নয়, কীভাবে দেশকে এগিয়ে নেয়া যায়, কীভাবে আমাদের বিশাল যুব সমাজের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করা যায়, দেশের অর্থনীতি শক্তিশালী করা যায় ইত্যাদি জাতীয় ইসুতে আমাদের মধ্যে ঐক্যমত হতে হবে।’’
পিন্টুর রুহের মাগফেরাত কামনা করেন রিপন। দোয়া মাহফিলে যুব দলের সিনিয়র সহসভাপতি আবদুস সালাম আজাদ, কেন্দ্রীয় নেতা এলবার্ট পি কস্টা, আবদুল খালেক, আবদুল বারী ড্যানি, আলী আকবর চুন্নু, মাহবুবুল আলম স্বপন, আকম মোজাম্মেল হক, কাজী রফিক, বিএনপির শাহজাদান মিয়া, রফিক শিকদার, এম এ ফোরকান, উলামা দলের হাফেজ আবদুল মালেক, শাহ নেসারুল হক, মৎস্যজীবী দলের আবদুল আউয়াল খান প্রমূখ নেতৃবৃন্দ অংশ নেন।

Print Friendly, PDF & Email