কারাগারের পরিবেশ অমানবিক: ড. মিজান

0
140

ঢাকা: ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে ধারণ ক্ষমতা ২০০৬ জন থাকলেও সেখানে ৭৩২৮ জন বন্দী রয়েছেন। জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান ড. মিজানুর রহমান এ কথা বলেছেন। আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টার দিকে কারাগার পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান তিনি।

ড. মিজানুর রহমান বলেন, কারাগারে ধারণক্ষমতার দ্বিগুণেরও বেশি বন্দী রয়েছে। ফলে সেখানকার পরিবেশ অমানবিক। আর সারাদেশে ৫৮৬ জন বন্দী কারাভোগের মেয়াদ শেষের পরও কেন মুক্তি পাচ্ছেন না- স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে বিষয়টি খতিয়ে দেখার আহ্বান জানান মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান।

ড. মিজানুর রহমান বলেন, ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে কেরানিগঞ্জে বন্দী স্থানান্তরের সময় যেন কোনো বাণিজ্য না হয় বা প্রভাবশালীরা যেন টাকার বিনিময়ে কোন সুযোগ-সুবিধা নিতে না পারেন, সেজন্য কারা কর্তৃপক্ষকে সতর্ক থাকারও পরামর্শও দেন তিনি।

তিনি বলেন, “সাঁড়াশি অভিযানে আটকদের নিয়ে বাণিজ্য চলছে এমন অভিযোগও আমাদের কাছে আসছে। আর বন্দীদের ওপর এর কতটুকু প্রভাব পড়ছে তা দেখেও বোঝা যায়।” “কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দীদের ধারণ ক্ষমতা রয়েছে ২০০৬ জন। আর এখন কারাবন্দী রয়েছে ৭৩২৮ জন। যা তিনগুণেরও বেশি।” কারাগারে এত বন্দী থাকলে কতটা সেবা দেয়া সম্ভব, তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন মিজানুর রহমান।

এছাড়া, কারাগারের ভেতরে অবস্থিত হাসপাতালের চিত্র দেখে শঙ্কা প্রকাশ করে তিনি বলেন, “হাসপাতালের সেবা যথেষ্ঠ মানবিক নয়।” কারাগারে সেবার মান নিশ্চিত করার জন্যও সুপারিশ করেন তিনি। তবে মানবাধিকার কমিশনের করা অভিযোগ অস্বীকার করেন কারা কর্তৃপক্ষ।

Print Friendly, PDF & Email