কাল থেকে রাজশাহী, বগুড়া ও সিলেটে হরতাল

0
229

Hartal 04
নিউজ ডেস্ক: কাল বুধবার থেকে রাজশাহী, বগুড়া এবং সিলেটে হরতালের ডাক দেয়া হয়েছে।
রাজশাহীতে আগামীকাল বুধবার সকাল থেকে ৪৮ ঘণ্টার হরতাল ডেকেছে ছাত্রশিবির। পরশু বৃহস্পতিবার সিলেট বিভাগে হরতাল ডেকেছে বিএনপি। বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০-দলীয় জোটের চলমান অবরোধের মধ্যে আজ মঙ্গলবার আলাদাভাবে এ হরতালের ডাক দেওয়া হয়।
রাজশাহী: রাজশাহী বিভাগের আট জেলায় কাল সকাল ছয়টা থেকে ৪৮ ঘণ্টার হরতাল ডেকেছে ইসলামী ছাত্রশিবির। শিবিরের চাঁপাইনবাবগঞ্জ সিটি কলেজ শাখা সভাপতি আসাদুল্লাহ তুহিনকে র্যাহব ধরে নিয়ে হত্যা করেছে-এ অভিযোগ করে রাজশাহী মহানগর ছাত্রশিবিরের পক্ষ থেকে এই হরতালের ডাক দেওয়া হয়।
রাজশাহী মহানগর ছাত্রশিবিরের প্রচার সম্পাদক আসাদুজ্জামান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে হরতাল ডাকার খবর জানানো হয়। এতে বলা হয়, রাজশাহী অঞ্চলের শিবির নেতাদের এক জরুরি বৈঠকে হরতালের সিদ্ধান্ত হয়। বৈঠকে ছাত্রশিবির রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সভাপতি আশরাফুল আলম, রাজশাহী মহানগরে সভাপতি আনোয়ারুল ইসলাম, বগুড়া শহর শাখার সভাপতি আলাউদ্দিন সোহেলসহ আট জেলার সভাপতিরা উপস্থিত ছিলেন।
বিজ্ঞপ্তিতে দাবি করা হয়, গতকাল সোমবার দুপুরে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সিটি কলেজের এইচএসসির দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ও কলেজ শাখা শিবিরের সভাপতি আসাদুল্লাহ তুহিনকে র্যাববের একটি দল তাঁর নিজ বাসা থেকে ধরে নিয়ে যায়। মঙ্গলবার সকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালে তাঁর লাশ পাওয়া যায়।
সিলেট: সিলেট বিভাগের চার জেলায় বৃহস্পতিবার সকাল-সন্ধ্যা হরতাল ডেকেছে বিএনপি। দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবাদে সিলেট, সুনামগঞ্জ, হবিগঞ্জ ও মৌলভীবাজারে এ হরতাল পালন করা হবে। আজ দুপুরে জেলা ও নগর বিএনপি এ হরতালের ডাক দেয়। জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক এমরান আহমদ চৌধুরী ও মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য আজমল বখত চৌধুরী হরতাল ডাকার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে একের পর এক দায়ের করা মামলায় কথিত ‘হুকুমের আসামি’ করার প্রতিবাদে এ হরতাল ডাকা হয়েছে।
বগুড়া: বিএনপি চেয়ারপার্সন ও ২০ দলীয় জোটনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রতিবাদে বগুড়া জেলায় ৪৮ ঘণ্টার হরতালের ডাক দিয়েছে ২০ দলীয় জোট। বুধবার সকাল ৬টা থেকে শুক্রবার সকাল ৬টা পর্যন্ত অবরোধের পাশাপাশি হরতাল চলবে। আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় বগুড়ার ঐতিহাসিক আলতাফুন্নেছা খেলার মাঠে আরাফাত রহমান কোকো’র গায়েবানা জানাযার পূর্বে দেয়া বক্তব্যে এই হরতাল কর্মসূচী ঘোষনা করেন ২০ দলীয় জোটের আহবায়ক ও জেলা বিএনপির সভাপতি ভিপি সাইফুল ইসলাম । তিনি বলেন, এ সময়ের মধ্যে বেগম জিয়ার বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহার করা না হলে আরও কঠোর কর্মসুচি দেয়া হবে। সমাবেশ শেষে সেখানে আরাফাত রহমান কোকো’র গায়েবানা জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। জানাযা নামাজে ইমামতি করেন বায়তুর রহমান সেন্ট্রাল জামে মসজিদের খতিব মাওলানা আব্দূল কাদের। জানাযা নামাজে বিএনপি, জামায়াতসহ শরীক দলের নেতৃবৃন্দ ছাড়াও বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মী ও সাধারন মানুষ অংশ গ্রহন করেন।

Print Friendly, PDF & Email