Home জাতীয় গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া শক্তিশালী করার ওপর গুরুত্বারোপ

গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া শক্তিশালী করার ওপর গুরুত্বারোপ

347
0

Nisha-Khaleda
ঢাকা: বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সাথে বৈঠক করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের সহকারি পররাষ্ট্র মন্ত্রী নিশা দেশাই বিসওয়াল। শুক্রবার সন্ধ্যায় খালেদা জিয়ার গুলশানের বাসায় ঘণ্টাব্যাপী এই বৈঠক হয়। বৈঠকে চলমান রাজনৈতিক ও গণতান্ত্রিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলে জানা গেছে।
সন্ধ্যা ৬টা ৫ মিনিটে ঢাকাস্থ মার্কিন দূতাবাসের একটি গাড়িতে করে খালেদা জিয়ার বাসায় আসেন নিশা দেশাই। শুভেচ্ছা বিনিময় শেষে ৬টা ১০ মিনিটে আনুষ্ঠানিক বৈঠকে বসেন খালেদা জিয়ার সাথে। ৭টা ১৫ মিনিটে এ বৈঠক শেষ হয়। এ সময় নিশা দেশাইয়ের সাথে রাষ্ট্রদূত ড্যান ডব্লিউ মজীনাসহ কয়েকজন কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।
বিএনপির পক্ষে উপস্থিত ছিলেন ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মবিন চৌধুরী, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা রিয়াজ রহমান ও সাবিহ উদ্দিন আহমেদ।
বৈঠকের পর দলের ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মবিন চৌধুরী সাংবাদিকদের জানান, নিশা দেশাই বিসওয়াল দক্ষিণ এশীয় অঞ্চলে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ার শক্তিশালী করার ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন।
তিনি বলেন, নেপালে সার্ক শীর্ষ সম্মেলন থেকে নিশাই দেশাই ঢাকায় এসেছেনে। তিনি সেখান যা বলেছেন, তা এখানে তা পূর্নব্যক্ত করেছেন।
তিনি বলেছেন, দক্ষিণ এশীয় অঞ্চলে সামাজিক-অর্থনৈতিক অগ্রগতিকে এগিয়ে নিতে হলে এই অঞ্চলে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়াকে আরো সুদৃঢ় করতে হবে। যাতে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া ও অর্থনৈতিক সহযোগিতা পাশাপাশি চলতে পারে।
শমসের মবিন চৌধুরী বলেন, ঘণ্টাব্যাপী এই বৈঠক দ্বি-পাক্ষিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়াদি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালে যুক্তরাষ্ট্রের সাথে গড়া সম্পর্ক ও ভবিষ্যতে এ সম্পর্ক কিভাবে এগিয়ে নেয়া যায়, সে বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।
দক্ষিণ এশীয় সহযোগিতা ফোরাম-সার্ক ভুমিকা রাখার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি সাধুবাদ জানান খালেদা জিয়া।
শমসের মবিন চৌধুরী বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন, যুক্তরাষ্ট্র এই অঞ্চলে সামাজিক, অর্থনৈতিক ও গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া জোরদারে তাদের সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে।
জানা গেছে, বৈঠকের শুরুতে শুভেচ্ছা বিনিময় শেষে বিএনপির তরফ থেকে ৫ জানুয়ারির নির্বাচন ও চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি সম্পর্কে বিস্তারিত নিশা দেশাই ও তার প্রতিনিধিদের সামনে ব্রিফ করা হয়।
দেশের রাজনৈতিক স্থিতিশীলতার স্বার্থে জনগণ দ্রুত আরেকটি নির্বাচন চাচ্ছে বলেও নিশা দেশাইকে জানায় বিএনপি। বিরোধী দলের উপর সরকারের দমন-পীড়ন ও সভা-সমাবেশের অধিকার কেড়ে নেয়ার বিষয়টিও আলোচনায় উঠে আসে।
একটি সূত্রে জানা গেছে, বৈঠকের এক পর্যায়ে খালেদা জিয়া নিশা দেশাইয়ের সাথে ২০ মিনিট একান্তে কথা বলেন।
জানা গেছে, আগামীকাল এক সংবাদ সম্মেলনে নিশা দেশাই বাংলাদেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান পরিষ্কারভাবে তুলে ধরবেন।

Previous articleইসলামী ব্যাংকের বোর্ড অব ডাইরেক্টরস সভা অনুষ্ঠিত
Next article২০২১ সালের আগেই মধ্যম আয়ের দেশ: প্রধানমন্ত্রী