ছাত্রলীগ নেত্রীকে শ্লীলতাহানির চেষ্টা: প্রতিমন্ত্রীর ভাইয়ের বিরুদ্ধে মামলা

0
240

রংপুর: রংপুর কোতোয়ালি থানায় প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমান রাঙ্গার ছোট ভাই মহিউল আহমেদ মহির বিরুদ্ধে নারী নির্যাতন আইনে মামলা হয়েছে। ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সহসম্পাদক সুমনা আক্তার লিলি মঙ্গলবার রাত সোয়া ১০টার দিকে এ মামলা করেন। এতে মহির বিরুদ্ধে তাকে শ্লীলতাহানির চেষ্টার অভিযোগ করেছেন।

লিলি রংপুরের তারাগঞ্জ উপজেলার ইকরচালি এলাকার আইয়ুব আলীর মেয়ে। মামলায় তিনি উল্লেখ করেন, স্থানীয় যুবলীগের কয়েকজনকে নিয়ে গাড়িতে করে তিনি রংপুরের টার্মিনাল এলাকায় আম কিনতে যান।

এ সময় পিছন থেকে মোটরসাইকেলে করে আসা স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী রাঙ্গার ভাই মহি সাইড দেওয়ার জন্য পিছন থেকে হর্ন দেন। কিন্তু গাড়ির চালক তা শুনতে পাননি।

এদিকে গাড়ি থেকে নামার পরপরই তারাগঞ্জের যুবলীগ নেতা শহীদকে মারধর শুরু করেন মহি। লিলি নিজের পরিচয় দিয়ে এগিয়ে এলে তাকেও চুল ধরে মারধর ও জামা ছিঁড়ে ফেলে শ্লীলতাহানির চেষ্টা চালান। লোকজনের সহায়তায় তিনি রক্ষা পান।

লিলি অভিযোগ করেন, মহি এ সময় আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগকে উদ্দেশ করে অকথ্য ভাষায় গালাগাল করেন। এ ঘটনা জানাজানি হলে রংপুরের ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতা-কর্মীরা সেখানে যাওয়ার আগেই মহি পালিয়ে যান। পরে মহির গ্রেপ্তার দাবিতে রংপুর কোতোয়ালি থানায় গিয়ে অবস্থান নেন নেতা-কর্মীরা।

এ বিষয়ে মহি বলেন, বিষয়টি তেমন কিছু না। সামান্য কথা-কাটাকাটি হয়েছে। উক্ত মহিলা আমাকে গালাগালি করে উল্টো আমার বিরুদ্ধে মামলা দিয়েছে, যা অত্যন্ত দুঃখজনক।

কোতোয়ালি থানার ওসি এ বি এম জাহিদুল ইসলাম জানান, ছাত্রলীগ নেত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগে মামলা হয়েছে। আসামি মহিউল আহমেদ মহিকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

Print Friendly, PDF & Email