ছেলের ধর্ষণে বাবা-মায়ের সহযোগিতা !

0
142

 

বগুড়া: বগুড়ার ধুনট উপজেলায় অপহরণের পর এক কিশোরীকে (১৪) তিনদিন আটকে রেখে মানিক মিয়া (২৫) নামে এক যুবক ধর্ষণ করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভিকটিম শনিবার রাতে মানিক ও তার বাবা-মায়ের বিরুদ্ধে ধুনট থানায় মামলা করেছে। এ ঘটনায় রোববার বিকাল পর্যন্ত পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করেনি।
এজাহার সূত্র জানা যায়, ধুনট উপজেলার চুনিয়াপাড়া গ্রামের এক কিশোরীকে (১৪) পার্শ্ববর্তী পূর্ব গুডওয়ারী গ্রামের জহুরুল হকের ছেলে মানিক মিয়া প্রায় পাঁচ মাস আগে প্রেমের প্রস্তাব দেয়। ওই কিশোরী রাজি না হওয়ায় মানিক ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে বিভিন্নভাবে উত্ত্যক্ত করে আসছে।
গত ৮ মার্চ রাতে ভিকটিম প্রতিবেশীর বিয়ের অনুষ্ঠান থেকে বাড়ি ফিরছিল। এ সময় বখাটে মানিক মিয়া তাকে অপহরণ করে এবং সিএনজিতে তুলে নিজ বাড়িতে নিয়ে যায়।
মানিকের বাবা জহুরুল হক ও মা মার্জিনা বেগম তাকে ছেলের সঙ্গে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে ঘরে আটকে রাখেন। মানিক ১০ মার্চ পর্যন্ত তাকে ধর্ষণ করে। ১২ মার্চ বিকালে সে (ভিকটিম) কৌশলে মানিকের বাড়ি থেকে পালায়।
শনিবার রাতে সে ধুনট থানায় বাবা ও মাসহ মানিকের বিরুদ্ধে মামলা করে। ধুনট থানার ওসি (তদন্ত) পঞ্চনন্দ মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Print Friendly, PDF & Email