জগন্নাথপুরের প্রবাসীরা ইউনিয়ণ নির্বাচনে অংশ নিতে দেশে আসতে শুরু করেছেন, ৮ ইউনিয়নে সম্ভাব্য প্রার্থী ৪৮

0
204

স্টাফ রিপোর্টার: আগামী বছরের মার্চ-এপ্রিলে সরকার সারা দেশে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন করার ঘোষান দেয়ার পর থেকে প্রবাসী অধ্যুষিত জগন্নাপুর উপজেলায় নির্বাচনী হাওয়া বইতে শুরু করেছে। ইতিমধ্যে নির্বাচন করতে ইচ্ছুক প্রবাসীরা দেশে আসতে শুরু করেছেন। পবিত্র ঈদুল আজহায় সম্ভাব্য প্রার্থীরা ব্যানার, পোস্টার ফেষ্টুন’সহ নানাভাবে নিজেদের প্রার্থীতার কথা জানান দেবার চেষ্টা করছেন। নির্বাচন করতে ইচ্ছুক সম্ভাব্য প্রার্থীরা প্রবাস থেকে স্ব-স্ব ইউনিয়নের ভোটার ও সমর্থকদের সঙ্গে ব্যক্তিগত যোগাযোগ এবং আত্মীয়-স্বজনদের মাধ্যমে জনসমর্থন আদায়ে চেষ্ঠা শুরু করে দিয়েছেন। বর্তমান চেয়ারম্যানরাও নিজেদের অবস্থান সুদৃঢ় করতে ভোটারদের সাথে ভালো ব্যবহার সুসর্ম্পক স্থাপনের কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। ঈদুল আজহায় অনেক সম্ভাব্য প্রার্থীরা গরিব অসহায় মানুষের মধ্যে দান খয়রাত করেছেন।

একটি পৌরসভা ও আটটি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত জগন্নাথপুর উপজেলার এখন পর্যন্ত উপজেলার আটটি ইউনিয়নে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীর সংখ্যা ৪৮জন। এদের মধ্যে-

১ নং কলকলিয়া ইউনিয়নের সম্ভাব্য প্রার্থী ৮ জন। এরা হলেন, বর্তমান চেয়ারম্যান মোঃ সাজ্জাদুর রহমান (জামায়াত), যুক্তরাজ্য প্রবাসী সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল হাশিম (আ.লীগ), ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি বদরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক দ্বীপক কান্তি দে দীপাল, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মাষ্টার, মোঃ আলাল হোসেন রানা (আওয়ামীলীগ), ধন মিয়া লস্কর (আওয়ামীলীগ), দুদু মিয়া (যুবলীগ)। তন্মেধ্যে বর্তমান চেয়ারম্যান জামায়াত নেতা সাজ্জাদুর রহমান নির্বাচনে অংশ না নিলে তার ভাই যুক্তরাজ্য প্রবাসী জগন্নাথপুর ব্রিটিশ বাংলা এডুকেশন ট্রাস্টের সাবেক সভাপতি রফিক মিয়া নির্বাচনে অংশ নিবেন বলে শোনা যাচ্ছে।

২ নং পাটলী ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হয়েছেন ৪জন তাঁরা হলেন, বর্তমান চেয়ারম্যান যুক্তরাজ্য প্রবাসী সিরাজুল হক (আওয়ামীলীগ), সাবেক চেয়ারম্যান আঙ্গুর মিয়া (আওয়ামীলীগ), হারুন মিয়া (বিএনপি)দবির মিয়া, (জাতীয় পার্টি) সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে মাঠে প্রচারনায় রয়েছেন।

৩ নং মীরপুর ইউনিয়নে সীমানা সংক্রান্ত আইনি জটিলতায় এক যুগ ধরে নির্বাচন হচ্ছে না। আগামী নির্বাচনে হবে কীনা সংশয় রয়েছে। তারপরও তৎপর রয়েছেন নির্বাচন ৬ জন প্রার্থী এরা হলেন, বর্তমান ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জমির উদ্দিন (আওয়ামীলীগ), জগন্নাথপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক ছাত্রনেতা ও যুক্তরাজ্য ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ছফর রাজ জুবের (আওয়ামীলীগ), যুক্তরাজ্য প্রবাসী মাহবুবুল হক শেরিন (আওয়ামীলীগ), ইলিয়াছ মিয়া (আওয়ামীলীগ) আব্দুস শহীদ (আওয়ামীলীগ), নূর মিয়া (বিএনপি), যুক্তরাজ্য প্রবাসী শাহেদা খানম(স্বতন্ত্র)।

৫ নং চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়নে ৭জন প্রার্থীর নাম শোনা যাচ্ছে। প্রার্থীরা হলেন বর্তমান চেয়ারম্যান মোঃ আরশ মিয়া (আওয়ামীলীগ), সাবেক চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম খসরু (বিএনপি), শহিদুল ইসলাম বকুল(আওয়ামীলীগ), আব্দুল গফুর (আওয়ামীলীগ), লুৎফুর রহমান (আওয়ামীলীগ), আব্দুল মোমিন(স্বতন্ত্র) ও যুক্তরাজ্য প্রবাসী চিলাউড়া গ্রামের আলী হোসেন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিবেন। ইতিমধ্যে নির্বাচনে অংশ নিতে তিনি দুই একদিনের মধ্যে দেশে আসছেন বলে তার স্বজরা জানিয়েছেন।

৬ নং রানীগঞ্জ ইউনিয়নে প্রার্থী সংখ্যা ৫জন। তন্মেধ্যে বর্তমান চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মজলুল হক (আওয়ামীলীগ),সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল হাফিজ(আওয়ামীলীগ) ছদরুল ইসলাম(আওয়ামীলীগ),সালেহ আহমদ (আওয়ামীলীগ) সামছুল ইসলাম (বিএনপি)।

৭ নং সৈয়দপুর শাহারপাড়া ইউনিয়নে বর্তমানে চার জন প্রার্থীর নাম শোনা যাচ্ছে। এরা তিন জনই যুক্তরাজ্য প্রবাসী। তন্মেধ্যে বর্তমান চেয়ারম্যান সৈয়দ আবুল হাসান(আওয়ামীলীগ), আব্দুল হাসিব (আওয়ামীলীগ), তৈয়ব মিয়া কামালী (আওয়ামীলীগ), খালেদ মিয়া ওলিদ (স্বতন্ত্র) প্রার্থী হিসেবে নাম শোনা যাচ্ছে। এ ইউনিয়নে প্রার্থী সংখ্যা বাড়তে পারে।

৮ নং আশারকান্দি ইউনিয়নে প্রার্থী সংখ্যা ৬ জন। তাঁরা হলেন, বর্তমান চেয়ারম্যান আইয়ুব খান (আওয়ামীলীগ), সাবেক চেয়ারম্যান মদরিছ মিয়া (আওয়ামীলীগ), আবু ঈমানী (আওয়ামীলীগ), সাবেক ছাত্রনেতা সিরাতুল আম্বিয়া টিপু (জামায়াত), সাবেক ছাত্রনেতা ও উপজেলা যুবলীগের সাবকে যুগ্ন আহবায়ক হামিদুর রহমান চৌধুরী বাচ্চু (যুবলীগ), আজাদ কাবেরী (আওয়ামীলীগ) আব্দুস সামাদ রানা (আওয়ামীলীগ) ইয়াহর মিয়া (বিএনপি)।

৯ নং পাইলগাঁও ইউনিয়নে ৫ জন প্রার্থীর নাম শোনা যাচ্ছে। প্রার্থীরা হলেন, বর্তমান চেয়ারম্যান আপ্তাব উদ্দিন (আওয়ামীলীগ), সাবেক চেয়ারম্যান মনজুর আলী আফজল (আওয়ামীলীগ), সাবেক মেম্বার সুন্দর উদ্দিন (আওয়ামীলীগ), সাবেক ছাত্রনেতা ইয়াসিন খান (জামায়াত), মাওলানা দবিরুল ইসলাম (বিএনপি) প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিবেন।

জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাচন অফিসার গোলাম সারোয়ার ‘ডেইলী আমার বাংলা’র এ প্রতিবেদক কে জানান, আগামী বছরের মার্চ-এপ্রিল মাসের মধ্যে ইউনিয়ন নির্বাচন হবে। জগন্নাথপুর উপজেলার ইউনিয়নের নির্বাচন প্রথম দফায় অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email