জগন্নাথপুরে পৃথক সংঘর্ষে নারীসহ আহত ৩০

0
143

আতিফ ইসলাম, জগন্নাথপুর: জগন্নাথপুরে পৃথক সংঘর্ষের ঘটনায় নারীসহ কমপক্ষে ৩০ আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এ নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোন সময় আবারো বড় ধরণের সংঘর্ষের আশঙ্কা করছেন এলাকাবাসী।

জানাগেছে, এক লাইনের যাত্রী অন্য লাইনের গাড়িতে বহন করা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে জগন্নাথপুর পৌর শহরের পূর্ব পাড় ও শিবগঞ্জ অটোরিকশা শ্রমিক সমিতির চালকদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছে। তাদের বিরোধটি নিস্পত্তির জন্য স্থানীয় গণ্যমান্য লোকজন উদ্যোগ নিলেও কাজ হয়নি। অবশেষে এরই জের ধরে গতকাল সোমবার বিকেল ৫ টার দিকে স্থানীয় হেলিপ্যাড এলাকায় উভয় পক্ষের চালকদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনায় এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। দেশীয় লাঠিসোটা নিয়ে এক পক্ষ আরেক পক্ষকে ধাওয়ার ঘটনায় বাজারের ব্যবসায়ীসহ পথচারীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। চালকদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনায় উভয় পক্ষের চালক, ব্যবসায়ী ও পথচারীসহ কমপক্ষে ১২ জন আহত হয়েছেন। আহতরা হচ্ছেন, ইউনুছ আলী, সুজন মিয়া, আলীনুর, সিপন মিয়া, আলামিন, রাজিব, মাহবুব, আতিকুর রহমান ও আফাজুল ইসলাম। আহতদের মধ্যে ১ জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। অন্যান্য আহতদের জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তিসহ প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। সংঘর্ষে পূর্বপাড় সমিতির চালকদের হামলার ঘটনায় ২ টি অটোরিকশা, শিবগঞ্জ সমিতির অফিস ও স্থানীয় কয়েকটি দোকান ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে জগন্নাথপুর থানার বিপুল সংখ্যক  পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করেন।

এদিকে, বিকেল ৩ টার দিকে গরুর ধান খাওয়া নিয়ে উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের মজিদপুর গ্রামের হাবিবুর রহমান ও তছর উদ্দিনের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। প্রায় ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষের ঘটনায় হাবিবুর রহমান, লতিফুর রহমান, অজুদ মিয়া, আলী নুর, কালাম মিয়া, নেওয়া বিবি, লুৎফুর রহমান, মাহবুবুর রহমান, কবির মিয়া, তছর উদ্দিনসহ উভয় পক্ষের কমপক্ষে ১৪ জন আহত হন। আহতদের মধ্যে ৬ জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। অন্যান্য আহতদের জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তিসহ প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। অপরদিকে-মাঠে ধান শুকানো নিয়ে সকাল ১১ টার দিকে উপজেলার চিলাউড়া-হলদিপুর ইউনিয়নের বেরী গ্রামের মুহিবুর রহমান ও জাহাঙ্গীর মিয়ার লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় মুহিবুর রহমান, কবির মিয়া, তেজাব আলী, মালেকা বিবিসহ আরো ৪ জন আহত হন। আহতদের মধ্যে ২ জনকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। অন্যান্য আহতদের জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email