জগন্নাথপুরে শশুর বাড়ি থেকে মেয়ের জামাই নিখোঁজ: আটক ২

0
185

নাইম তালুকদার: জগন্নাথপুরে বিয়ের ৪দিনপর শশুরবাড়িতে বেড়াতে এসে কাজী জায়েদ মিয়া নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায় এলাকায় তোলপাড় চলছে। বৃহস্পতিবার নিখোঁজ জায়েদ মিয়ার নববধু স্ত্রী নাজমা আক্তার নাসরিন ও নববধুর বড় ভাই রিপন মিয়া (৫০) কে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ। জানাযায়, ছাতক পৌর শহরের ফকির টিলা এলাকার বাসিন্দা কাজী মো: লিলু মিয়ার পুত্র কাজী জায়েদ মিয়া গত ১১সেপ্টেম্বর জগন্নাথপুর পৌর শহরের ইসহাকপুর গ্রামের তারা মিয়ার মেয়ে নাজমা আক্তার নাসরিনকে বিয়ে করেন এবং ইসলামী শরিয়াহ অনুযায়ী আড়াই দিনের শশুর বাড়ি বেড়াতে আসতে হয়।

গত ১৩ সেপ্টেম্বর কাজী জায়েদ মিয়া তার নববধু স্ত্রী নাজমা আক্তার নাসরীনকে নিয়ে শশুর বাড়ি জগন্নাথপুর পৌর শহরের ইসহাকপুর গ্রামে আসেন। শশুর বাড়িতে আড়াই দিন থাকার পর ১৫ সেপ্টেম্বর কাজী জায়েদ মিয়া তার নববধু স্ত্রীকে নিয়ে ছাতকে নীজ বাড়িতে যাওয়ার কথা থাকলেও ঐদিন বর কাজী জায়েদ মিয়া দুপুরে তার শশুর বাড়ি থেকে নিখোঁজ হন। নিখোঁজ হওয়ার বিষয়টি নববধুর চাচা চাঁন মিয়া মোবাইল ফোনে বর কাজী জায়েদ মিয়ার পরিবারকে জানালে হই ছঁই পড়ে যায়। এ ব্যাপারে নিখোঁজ বর কাজী জায়েদ মিয়ার পিতা কাজী মো: লিলু মিয়া ঐদিনই জগন্নাথপুর থানায় সাধারন ডায়েরী করেন। আত্মীয় স্বজন ছাড়াও বিভিন্ন স্থানে খুঁজা খুজি করে বর কাজী জায়েদ মিয়ার সন্ধান না পেয়ে বৃহস্পতিবার জগন্নাথপুর থানায় জানানো হলে পুলিশ কাজী জায়েদ মিয়ার স্ত্রী নববধু নাজমা আক্তার নাসরীন ও তার বড় ভাই রিপন মিয়াকে ইসহাকপুর এলাকার নীজ বাড়ি থেকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে থানায় নিয়ে আসেন।

এদিকে ইসহাকপুর এলাকার লোকজন জল্পনা কল্পনা করছেন বিয়ের পর স্বামী স্ত্রীর মধ্যে ব্যক্তিগত কলহের কারনে বর কাজী জায়েদ মিয়া অভিমান করে কোথায়ও আত্মগোপনে রয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email