জগন্নাথপুর ও ওসমানীনগরে সংঘর্ষে মাদ্রাসা ছাত্র নিহত, আহত ২০

0
258

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি: নির্বাচনী বিরোধিতা নিয়ে জগন্নাথপুর উপজেলার আশারকান্দি ইউনিয়নের উত্তর কালনিরচর ও পার্শ্ববর্তী ওসমানীনগর থানার দক্ষিণ কালনিরচর গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে এক মাদ্রাসা ছাত্র নিহতসহ উভয় পক্ষের গুলিবিদ্ধসহ কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে ১০ জনকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও বাকি ১০ জনকে জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, গত শনিবার বিকেলে ওসমানীনগর থানার স্থানীয় বাংলা বাজারে ওসমানীনগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আ.লীগের বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী জগলু চৌধুরীকে দল থেকে বহিস্কার করা নিয়ে ওসমানীনগর থানার দক্ষিণ কালনিরচর গ্রামের বাহার মিয়া ও জগন্নাথপুর উপজেলার উত্তর কালনিরচর গ্রামের মঈনুল ইসলামের মধ্যে কথা কাটাকাটি এবং হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনাটি নিস্পত্তির লক্ষে গতকাল রোববার সকালে ওসমানীনগর থানা এলাকার ৬ জন ইউপি সদস্যসহ স্থানীয় গন্যমান্য লোকজন শালিস বৈঠকে বসার উদ্যোগ নিয়ে ছিলেন। এ সময় উভয় পক্ষের উত্তেজিত লোকজন কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। প্রায় ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষের ঘটনায় ১০ রাউন্ড বন্দুকের গুলি বর্ষণের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলে মঈনুল ইসলাম পক্ষের মাদ্রাসা ছাত্র সাইফুল ইসলামের (১৬) ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয়। এছাড়া শামসুল ইসলাম, আতাউর রহমান, আব্দুস সোবহান, আলাই মিয়া, খালিকুর রহমান, শামছুল মিয়া, রুবেল মিয়া, রাজন মিয়াসহ উভয় পক্ষের আরো ২০ জন আহত হন। আহতদের মধ্যে ১০ জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে এবং বাকি ১০ জনকে জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তিসহ প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। জগন্নাথপুর থানার ওসি মুরসালিন ও ওসমানীনগর থানার ওসি আব্দুল আউয়াল চৌধুরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

Print Friendly, PDF & Email