জগন্নাথপুর পৌর নির্বাচন: একাধিক প্রার্থী নিয়ে বিপাকে আ.লীগ, সংকটে বিএনপি

0
291

হিফজুর রহমান তালুকদার জিয়া, জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর পৌরসভা নির্বাচনে একাধিক প্রার্থী নিয়ে বিপাকে পড়েছে আওয়ামীলীগ। যোগ্য প্রার্থী সংকটে রয়েছে বিএনপি। পৌরসভা নির্বাচনের দিনক্ষণ ঠিক না হলেও আগামি ডিসেম্বরের মধ্যে নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে। এবারই প্রথম দলীয়ভাবে স্থানীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। দলীয় প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করতে স্থানীয় দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে জোর লবিং চালিয়ে যাচ্ছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা। সেই সাথে প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারণায় সরগরম হয়ে উঠেছে পৌর শহর। এবারের নির্বাচনে ৬ জন মেয়র প্রার্থীদের মধ্যে ৪ জনই প্রবাসি হওয়ায় যুক্তারাজ্যেও জমে উঠেছে তাদের প্রচারণা। পৌরসভা নির্বাচনে সেখানে অবস্থানরত প্রবাসিদের বিশাল ভূমিকা রয়েছে। যে কারণে নিজেদের পক্ষে প্রবাসিদের সমর্থন আদায়ে মরিয়া উঠেছেন প্রার্থীরা।

জগন্নাথপুর পৌরসভা নির্বাচনে সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী হিসেবে যাদের নাম শোনা যাচ্ছে তারা হচ্ছেন, জগন্নাথপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র যুক্তরাজ্য প্রবাসি আলহাজ্ব আব্দুল মনাফ (আ.লীগ), সাবেক পৌর চেয়ারম্যান যুক্তরাজ্য প্রবাসি মিজানুর রশীদ ভূইয়া (আ.লীগ), সাবেক পৌর কমিশনার লুৎফুর রহমান (আ.লীগ), যুক্তরাজ্য প্রবাসি আলহাজ্ব শাহ নুর“ল করিম (আ.লীগ), আবিবুল বারী আয়হান (বিএনপি) ও যুক্তরাজ্য প্রবাসি রাজু আহমদ (বিএনপি)।

পৌর কাউন্সিলর পদে সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে যাদের নাম শোনা যাচ্ছে তারা হচ্ছেন, পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ডের বর্তমান পৌর কাউন্সিলর খলিলুর রহমান (জাপা), আব্দুল ওয়াহাব (বিএনপি) ও শাহীন মিয়া (বিএনপি), ২ নং ওয়ার্ডের বর্তমান পৌর কাউন্সিলর মামুন আহমদ (আ.লীগ), আব্দুল কাদির (জাপা), নিজামুল করিম (আ.লীগ) ও আব্দুল কাহার (বিএনপি), ৩নং ওয়ার্ডের বর্তমান পৌর কাউন্সিলর তাজিবুর রহমান (বিএনপি), লিটন মিয়া (আ.লীগ), আফরোজ আলী (বিএনপি), শিশু মিয়া (বিএনপি) ও জুবায়ের আহমদ লেবু (জাপা), ৪ নং ওয়ার্ডের বর্তমান পৌর কাউন্সিলর প্যানেল মেয়র ২ সুহেল আমিন (আ.লীগ), সাবেক পৌর কমিশনার তাজুল ইসলাম সাচ্চা (জাপা), কামাল হোসেন (বিএনপি) ও দিলোয়ার হোসেন (আ.লীগ), ৫ নং ওয়ার্ডের বর্তমান পৌর কাউন্সিলর শফিকুল হক (আ.লীগ), ৬ নং ওয়ার্ডের বর্তমান পৌর কাউন্সিলর গিয়াস উদ্দিন মুন্না (আ.লীগ), সাবেক পৌর কমিশনার আবু সুফিয়ান ঝুনু (জাপা), সাবেক পৌর কমিশনার সাজিদ আলী (জাপা), সংবাদকর্মী গোবিন্দ দেব ও আনফর হাজারী, ৭ নং ওয়ার্ডে ব্যবসায়ী খলিলুর রহমান (আ.লীগ), সাবেক বাজার সেক্রেটারী সুহেল আহমদ (আ.লীগ), সেলিম মিয়া (আ.লীগ), জাকির হোসেন (বিএনপি) ও সুমন মিয়া, ৮ নং ওয়ার্ডের বর্তমান পৌর কাউন্সিলর প্যানেল মেয়র মো. আবাব মিয়া (আ.লীগ), সাবেক পৌর কমিশনার মাসুক মিয়া (আ.লীগ), আকমল হোসেন (আ.লীগ), সাফরোজ ইসলাম মুন্না (আ.লীগ), শফিক মিয়া (বিএনপি), শামীম আহমদ (বিএনপি) ও রোকন মিয়া (বিএনপি), ৯ নং ওয়ার্ডের বর্তমান পৌর কাউন্সিলর মঈন উদ্দিন (আ.লীগ), দ্বীপক কান্তি গোপ (আ.লীগ), তোহা চৌধুরী (আ.লীগ), ছমির উদ্দিন (বিএনপি), আনোয়ার হোসেন আনহার (বিএনপি), হাফিজুর রহমান ও নুর ইসলাম। সম্ভাব্য নারী কাউন্সিলর হিসেবে যাদের নাম শোনা যাচ্ছে তারা হচ্ছেন, ১, ২, ৩ নং সংরক্ষিত ওয়ার্ডের বর্তমান নারী কাউন্সিলর আয়ার“ন্নেছা ও সুফিয়া খানম, ৪, ৫, ৬ নং ওয়ার্ডের বর্তমান নারী কাউন্সিলর বাহারজান বিবি ও সাবেক নারী কমিশনার মিনা রাণী পাল, ৭, ৮, ৯ নং ওয়ার্ডের বর্তমান নারী কাউন্সিলর সুবর্ণা রাণী শর্মা, খালেদা বেগম ও নার্গিস ইয়াছমিন।

জানাগেছে, এবার দলীয়ভাবে স্থানীয় নির্বাচন হওয়ায় প্রার্থী ও ভোটারদের নির্বাচনী ভাবনা এবং হিসাব-নিকাশ বদলে গেছে। নতুনভাবে সবকিছুর হিসাব মেলাতে হিমশিম খাচ্ছেন তারা। দলীয়ভাবে নাকি ¯^তন্ত্রভাবে নির্বাচন করবেন এ নিয়ে বেকায়দায় পড়েছেন প্রার্থীরা। কিভাবে নির্বাচন করলে নির্বাচনী বৈতরণী পার হওয়া যাবে এ নিয়েও তারা হিসাব-নিকাশ মেলাচ্ছেন। এবার নতুনভাবে দলীয় প্রতীকে নির্বাচন হওয়া নিয়ে ভোটাররাও নতুন ভাবে তাদের ভাবনা ও হিসাব-নিকাশ মেলাচ্ছেন।

এদিকে একাধিক মেয়র প্রার্থী নিয়ে বিপাকে পড়েছে আওয়ামীলীগ ও যোগ্য প্রাথী নিয়ে সংকটে রয়েছে বিএনপি। এবারের পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামীলীগের সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী হচ্ছেন মোট ৪ জন। তারা হচ্ছেন জগন্নাথপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র যুক্তরাজ্য প্রবাসি আলহাজ্ব আব্দুল মনাফ, সাবেক পৌর চেয়ারম্যান যুক্তরাজ্য প্রবাসি মিজানুর রশীদ ভূইয়া, সাবেক পৌর কমিশনার লুৎফুর রহমান ও যুক্তরাজ্য প্রবাসি আলহাজ্ব শাহ নুর“ল করিম। তাদের মধ্যে ৩ জনই হেভিওয়েট প্রার্থী। তাদের রয়েছে ব্যাপক জনপ্রিয়তা। এর মধ্যে যে কেউ প্রার্থী হলে খুব সহজেই নির্বাচিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এখান থেকে কাউকে বাদ দেয়ার সুযোগ নেই। বাদ দিলে তাদের উপর অবিচার করা হবে। বাদ দেয়া হলে স্বতন্ত্রভাবে নির্বাচন করলে তারা বিজয়ী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে দলীয় মনোনীত প্রার্থী এক জনই হবেন। যিনি দলীয় প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করবেন। এ জন্য একাধিক হেভিওয়েট প্রার্থী নিয়ে বিপাকে পড়েছে আওয়ামীলীগ।

অপর দিকে-যোগ্য প্রার্থী নিয়ে সংকটে রয়েছে বিএনপি। জগন্নাথপুর উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি বর্তমান পৌর মেয়র আক্তার হোসেন নির্বাচনে অংশ গ্রহন না করায় যোগ্য প্রার্থী সংকটে পড়েছে বিএনপি। এছাড়া দলীয় কোন্দলের কারণে বেকায়দায় রয়েছে বিএনপি। বিএনপির সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী আবিবুল বারী আয়হান ও যুক্তরাজ্য প্রবাসি রাজু আহমদ নতুন মুখ। তারা কিভাবে আওয়ামীলীগের হেভিওয়েট প্রার্থীদের সাথে প্রতিদ্বন্ধিতা করবেন এ নিয়ে ভোটার ও সমর্থদের মধ্যে নতুন করে শঙ্কার সৃষ্টি হয়েছে। তবে বিএনপির হেভিওয়েট প্রার্থী বর্তমান পৌর মেয়র আক্তার হোসেন নির্বাচন করলে বাঘে-সিংহে লড়াই হবে বলে সচেতন পৌর নাগরিকদের মধ্যে অনেকে জানিয়েছেন। তাছাড়া ৫ নং ওয়ার্ডে আর কোন প্রার্থী না থাকায় অনেকটা সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছেন বর্তমান পৌর কাউন্সিলর শফিকুল হক। যদিও তিনি বিগত দুই বারের নির্বাচনে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন। এবার তিনি আওয়ামীলীগের প্রার্থী।

Print Friendly, PDF & Email