জনপ্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে কব্জায় নিয়েছে সরকার

0
223

Rijbi
ঢাকা: অবৈধ সরকার নীলনকশার মাধ্যমে জনপ্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে কব্জায় নিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, দেশে যে ভয়াবহ দুঃশাসন চালাচ্ছে সরকার তা অতীতের সকল স্বৈরাচারী দুঃশাসনের রেকর্ডকে ম্লান করে দিয়েছে। মঙ্গলবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ মন্তব্য করেন।
রিজভী জানান, আজ ঢাকা মেডিকেলে জনির গুলিবিদ্ধ লাশ আবিস্কৃত হলেও এখনও পর্যন্ত দিপু সরকার ও মাইনুদ্দিনের কোনো হদিস পাওয়া যাচ্ছে না। পাশাপাশি অবরোধ কর্মসূচি চলাকালে বরাবরের মতো আজকেও সারাদেশে বিএনপি ও ২০ দলীয় জোটের নেতা-কর্মীদের ওপর পুলিশ হামলা চালায় এবং নেতা-কর্মীদেরকে গ্রেফতার করছে।
তিনি জানান, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ছত্রছায়ায় আওয়ামী সশস্ত্র সন্ত্রাসীরাও নেতা-কর্মীদের ওপর বর্বরোচিত হামলা চালায়।
তিনি আরো জানান, ইতিমধ্যেই নড়াইল পৌর কাউন্সিলর ইমরুল কায়েসসহ চাঁপাইনবাবগঞ্জের ছাত্রদল নেতা মতিউর রহমান ও নোয়াখালীতে ছাত্রদল নেতাকে বন্দুক যুদ্ধের নামে বর্বর খেলা সংঘটিত করে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে।
তিনি জানান, ৫ জানুয়ারি প্রহসনের নির্বাচনের মাধ্যমে জোর করে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হয়ে বর্তমান শাসকগোষ্ঠী ভালভাবেই বুঝতে পারছে যে তাদের পক্ষে কোনো জনসমর্থন নেই, আর তাই তারা মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকারগুলো হরণের পাশাপাশি নিজেদেরকে রক্ষা করার জন্য এখন বিএনপি নেতা-কর্মীদের অপহরণ করে গুম করতে শুরু করেছে। হত্যা, গুম, খুন, অপহরণ, মানুষের বাক-ব্যক্তি স্বাধীনতা হরণ এবং গণমাধ্যমকে নিয়ন্ত্রণ করে দেশে এখন দ্বিতীয় বাকশালী শাসন চলছে।
তিনি আরো জানান, জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকার সুপ্রতিষ্ঠিত করতে এবং সকল দলের অংশগ্রহণমূলক সবার কাছে গ্রহণযোগ্য একটি স্বচ্ছ নির্বাচন অনুষ্ঠানের দাবিতে বিএনপি’র নেতৃত্বে দেশব্যাপী জনগণকে সাথে নিয়ে ২০ দলীয় জোটের লাগাতার অবরোধ কর্মসূচি চলছে। জনগণের অধিকার আদায়ের বিজয় অর্জিত না হওয়া পর্যন্ত দেশের ১৬ কোটি মানুষকে সাথে নিয়ে ২০ দলীয় জোট আন্দোলন সংগ্রাম চালিয়ে যেতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।” তিনি অবিলম্বে বিএনপি নেতা দীপু সরকার ও যুবদল নেতা মাইনুদ্দিনসহ সারাদেশে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কর্তৃক গ্রেফতারকৃত নিখোঁজ নেতা-কর্মীদের অবস্থান নিশ্চিত করার জোর দাবি জানান।
একই সময়ে অপর এক বিবৃতিতে রুহুল কবির রিজভী দেশব্যাপী চলমান অবরোধ কর্মসূচির পাশাপাশি গতকাল ২০ দলীয় জোট ঘোষিত ঢাকা ও খুলনা বিভাগে বুধবার সকাল ৬ টা থেকে ৪৮ ঘণ্টা এবং কুষ্টিয়া ও ঝিনাইদহ জেলায় আগামীকাল সকাল ৬ টা থেকে ৩৬ ঘণ্টার হরতাল শান্তিপূর্ণভাবে পালনের জন্য দেশবাসীসহ ২০ দলীয় জোটের সকল পর্যায়ের নেতা-কর্মীর প্রতি আহবান জানিয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email