জাগৃতি প্রকাশনীর মালিক  দীপনকে কুপিয়ে হত্যা

0
143

ঢাকা: জাগৃতি প্রকাশনীর মালিক ফয়সাল আরেফিন দীপনকে শনিবার কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। রাজধানীর শাহবাগে আজিজ সুপার মার্কেটে তার কার্যালয়ে ঢুকে দুর্বৃত্তরা তাকে কুপিয়ে রেখে বাইরে দিয়ে দরজা বন্ধ করে চলে যায়। নিহত ফয়সালের বাবা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের শিক্ষক আবুল কাশেম ফজলুল হক সাংবাদিকদের বলেন, শনিবার দুপুর দেড়টা নাগাদ ফয়সাল বাসায় তার সঙ্গেই ছিলেন। পরে তিনি শাহবাগে তার প্রকাশনী প্রতিষ্ঠানে যান। খোঁজ নেয়ার জন্য তিনি কয়েকবার ছেলেকে ফোন করেন। কিন্তু ছেলে ফোন ধরেননি। বিকেল চারটার দিকে তিনি আজিজ সুপার মার্কেটের তিন তলায় ১৩১ নম্বর রুমের সামনে যান। এটি তার ছেলের কার্যালয়।

নিহতের বাবা আরো বলেন, ওই সময় তিনি কার্যালয়টি ভেতর থেকে বন্ধ অবস্থায় দেখেন। তবে কার্যালয়ের কাচের দরজা দিয়ে দেখা যাচ্ছিল, ভেতরে আলো জ্বলছে। তখন তিনি ছেলে বাইরে গেছে ভেবে সেখান থেকে চলে যান। পরে ছেলের বউকে ফোন করলে জানতে পারেন, লালমাটিয়ায় শুদ্ধস্বর প্রকাশনীর মালিক আহমেদুর রশীদ টুটুলসহ তিনজনকে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। এই কথা শুনে তিনি লোকজন নিয়ে ছেলের কার্যালয়ে গিয়ে দরজা ভেঙে দেখেন, রক্তাক্ত অবস্থায় তার ছেলে পড়ে আছে।

ওই অবস্থায় ফয়সাল আরেফিনকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সন্ধ্যা সাতটার দিকে হাসপাতালের আবাসিক সার্জন রিয়াজ মোর্শেদ তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন। এর আগে ঢাকার লালমাটিয়ায় আরো একটি প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান শুদ্ধস্বরে ঢুকে হামলা করা হলে প্রকাশক ও ব্লগার আহমেদুর রশীদ টুটুলসহ সেখানে তিনজন আহত হন। তাদেরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। জানা গেছে, আহতদের অবস্থা গুরুতর।

এই দুটো প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান থেকেই নিহত ব্লগার অভিজিৎ রায়ের বই প্রকাশ করা হয়েছিল। গত ফেব্রুয়ারি মাসে অভিজিৎ রায়কে ঢাকায় বইমেলার কাছে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এবছরেই প্রায় একই ধরনের হামলায় চারজন ব্লগার নিহত হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email