জাতীয় নেতার লাশ কাঁধে রেখে সম্মেলন করা যায় না: স্মরণ

0
454

সুনামগঞ্জ: ১১ মার্চ জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ করে দেয়া হয়েছিল কেন্দ্র থেকে। কিন্তু নির্ধারিত তারিখে সম্মেলন অনুষ্ঠিত না হওয়ায় বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের জরুরি সভায় সুনামগঞ্জ জেলা শাখার কমিটি বিলুপ্তি ঘোষণা করা হয়েছে।
এদিকে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ফজলে রাব্বী স্মরণ সুনামগঞ্জ ছাত্রলীগের মঙ্গল কামনার পাশাপাশি সম্মেলন আয়োজনে উপযোগী পরিস্থিতি ছিলনা বলে জানিয়েছেন। তিনি বলেন, শহীদ পরিবারের এবং মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান আমি। জাতীয় নেতার লাশ কাঁধে নিয়ে আমার পক্ষে সম্মেলন করা সম্ভব হয়নি। সম্মেলন মানে উৎসব, উৎসাহ, উদ্দীপনা, নবীন-প্রবীণের মিলনমেলা। জননেতা সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত কিছুদিন আগে প্রয়াত হয়েছেন এবং তাঁর স্ত্রী সুনামগঞ্জ-২ আসনে উপনির্বাচন অংশগ্রহণ করছেন। আমরা সুনামগঞ্জ তথা বাংলাদেশের মানুষ জননেতা সুরঞ্জিত সেনগুপ্তকে হারিয়েছি এবং সুনামগঞ্জবাসী হারিয়েছে আমাদের অভিভাবককে। জাতীয় নেতার লাশ কাঁধে রেখে সম্মেলন করা যায় না। অভিভাবকের শূন্যতা কাটিয়ে উঠার আগেই উৎসবমুখর পরিবেশে সম্মেলন করা আমার এবং সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের পক্ষে সম্ভব হয়নি। আমরা বলেছিলাম ৩০ মার্চের পর যে কোনো তারিখে সম্মেলন করতে প্রস্তুত। তাছাড়া কিছুদিন আগে জগন্নাথপুরে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বর্তমানে হাওর জেলার মানুষ বোরো ধান নিয়ে চিন্তিত। এমন পরিস্থিতিতে সম্মেলন করতে না পারা যদি অপরাধ হয়, তাহলে আমি আদর্শিক জায়গা থেকে দোষী। আমি সব সময়ই সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের মঙ্গল কামনা করি।