জামাত শিবির কে সাথে নিয়ে ছাত্রসংসদের শপথ নিয়োনা: নাজমুল

0
323

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকী নাজমুল আলম ডাকসু নির্বাচন নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন।

পাঠকদের জন্য তা হুবহু তুলে ধরা হলো:

হতে পারে শোভনকে তুমি কম পছন্দ করো শোভন কিন্তু ছাত্রলীগের চেয়ার এবং তোমাদের মিছিলের সাথী।

ছাত্রলীগের প্যানেল থেকে ডাকসুতে নির্বাচিতদের বলবো জামাত শিবির কে সাথে নিয়ে ছাত্রসংসদের শপথ নিয়োনা ।প্রয়োজন হলে ২৮ বছর না আরও ২৮০ বছর ডাকসু বন্ধ থাকুক ।

প্রানের ক্যাম্পাসের নেতৃত্ব ঐ সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীর হাতে থাকবে এটা হতে পারেনা । বঙ্গবন্ধুর রক্ত এবং আদর্শের সাথে বেঈমানী করোনা ।

উল্লেখ্য দীর্ঘ আটাশ বছর পর গতকাল অনুষ্ঠিত হলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের প্রতিনিধি বাছাইয়ের নির্বাচন। নানা জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ- ডাকসু’র ভিপি নির্বাচিত হয়েছেন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক নুরুল হক নুর।

ডাকসু’র সাধারণ সম্পাদক-জিএস নির্বাচিত হয়েছেন সম্মিলিত শিক্ষার্থী সংসদ প্যানেল থেকে মনোনীত বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী।

এছাড়াও ডাকসু নির্বাচনে এজিএস পদে জয় লাভ করেছেন একই প্যানেলের প্রার্থী ও ছাত্রলীগের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসাইন।

বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক নুরুল হক নুর পেয়েছেন ১১০৬২ ভোট। তার প্রতিদ্বন্দ্বি ছাত্রলীগ সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন পেয়েছেন ৯১২৯ ভোট।

মধ্যরাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনের অডিটোরিয়ামে ভিসি অধ্যাপক আখতারুজ্জামান ফলাফল ঘোষণা করেন।

সকাল থেকে ভোট গ্রহণকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ তুলে নির্বাচন বর্জন করেন ছাত্রলীগ ছাড়া সবকটি প্যানেলের প্রার্থীরা। দীর্ঘ ২৮ বছর পর আজ অনুষ্ঠিত হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদ নির্বাচন।

স্বাধীন বাংলাদেশে এ পর্যন্ত মোট সাতবার অনুষ্ঠিত হয়েছে ডাকসু নির্বাচন। সবশেষ ডাকসু নির্বাচন হয় ১৯৯০ সালে।

সে সময় বাংলাদেশে ঢাকাসহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ছাত্র সংসদগুলো ছিল নানা ইস্যুতে জাতীয় রাজনৈতিক আন্দোলনের মূল চালিকাশক্তি, সেজন্য ছাত্র সংসদ নির্বাচনগুলোর গুরুত্ব ছিল অপরিসীম।

Print Friendly, PDF & Email