জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৬ দশমিক ৫১

0
205

GDP
অর্থনৈতিক প্রতিবেদক: চলতি ২০১৪-১৫ অর্থবছরে দেশের মোট অভ্যন্তরীণ উৎপাদন বা সামষ্টিক অভ্যন্তরীণ উৎপাদন (জিডিপি) প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৬ দশমিক ৫১ শতাংশ। অর্থবছরের প্রথম নয় মাসে এ প্রবৃদ্ধি অর্জিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের (এনইসি) সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল এ তথ্য জানান।
এ অর্থবছরে জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল সাড়ে ৭ শতাংশ। এ হিসাবে বাজেটে ঘোষিত লক্ষ্যমাত্রার থেকে প্রায় ১ শতাংশ পিছিয়ে সরকার।
এ প্রসঙ্গে সংবাদ সম্মেলনে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘আমরা বাজেটে জিডিপি প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য নির্ধারণ করেছিলাম সাড়ে ৭ শতাংশ। মনে করেছিলাম, ৭ শতাংশের কাছাকাছি অর্জন করা সম্ভব হবে। কিন্তু পারা যায়নি। কেন সম্ভব হয়নি তা সবার জানা।’
তিনি বলেন, ‘গত তিন মাসের অবরোধ, জ্বালাও-পোড়াও আর সহিংস রাজনীতি এর জন্য দায়ী ছিল। এর পরও ৬ দশমিক ৫১ জিডিপি অর্জন কম নয়। এজন্য আমি দেশের কৃষক, শ্রমিক, ড্রাইভারসহ সব পেশাজীবী মানুষের কাছে কৃতজ্ঞ। হরতাল অবরোধেও বেসরকারি খাত তাদের ব্যবসায়িক কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়ায় তাদেরও ধন্যবাদ জানাচ্ছি।’
এ সময় তিনি বলেন, ‘যদি দেশ স্বাভাবিকভাবে চলে, তাহলে জিডিপি ৭ শতাংশ ছাড়িয়ে যাবে। আর যদি না পারি, তবে তখন যে শাস্তি দেবেন তা-ই মেনে নেব।’
মন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের দেশের অর্থনৈতিক সূচকগুলো ভালো। পৃথিবীর চারটি দেশ ছয় বছর টানা ছয় শতাংশের বেশি জিডিপি অর্জন করেছে, তার মধ্যে বাংলাদেশ একটি।’
জিডিপি বাড়াতে হলে বিনিয়োগ বাড়াতে হবে- প্রসঙ্গ টেনে মন্ত্রী বলেন, চলতি অর্থবছরে বিনিয়োগ হয়েছে জিডিপির ২৮ দশমিক ৯৫ শতাংশ, যা আগের অর্থবছরে ছিল ২৮ দশমিক ৫৮ শতাংশ। বর্তমান বছরে সরকারি ও বেসরকারি উভয় ক্ষেত্রে বিনিয়োগ বেড়েছে।
তিনি আরো বলেন, জিডিপি ও বিনিয়োগ পরিস্থিতি বিবেচনায় বাংলাদেশ বিশ্বের ৫৮তম অর্থনীতির দেশ।

Print Friendly, PDF & Email