দিরাইয়ে স্বাধীনতা দিবসে র‌্যালীর শ্লোগানে বাধা, এলাকায় তোলপার

0
146

Derai Map
আবুল হোসাইন, দিরাই: দিরাইয়ে স্বাধীনতা দিবস ও জাতীয় দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে উপজেলার চরনারচর এস ই এস ডি পি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক, ছাত্র-ছাত্রী ও অভিভাবকদের বিজয় র্যা লীর শ্লোগানে ইউপি চেয়ারম্যানের বাধা ও শিক্ষকদের শাসানোর ঘটনায় এলাকায় তোলপাড়ের সৃষ্টি করেছে এবং ছাত্রদের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। ঘটনা স্থলে পুলিশ পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।
জানা গেছে, সকালের দিকে প্রধান শিক্ষক চন্দন কুমার চৌধুরীর নেতৃত্বে স্কুলের অন্তত আড়াইশ ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষক ও অভিভাক প্রতিনিধি চরনারচর-শ্যামরচর রোডে বড়খাল পর্যন্ত এক বর্ণাঢ্য বিজয় র্যা লী বের করে, র্যা লীতে এক পর্যায়ে ছাত্ররা জয় বাংলা-জয় বঙ্গবন্ধু ও আমার দেশ, তোমার দেশ -বাংলাদেশ বাংলাদেশ বলে শ্লোগান দেয়, র্যা লীটি বিভিন্ন রাস্তা প্রদক্ষিন করে ইউনিয়ন পরিষদের সামনে আসে, এমন সময় উপজেলার চরনারচর ইউপি চেয়ারম্যান রতিকান্ত দাস উত্তেজিত হয়ে শ্লোগান বন্ধ করতে বলেন এবং এটা আওয়ামী লীগের দেশ নয় বলে শিক্ষকদেরকে শাসিয়ে দেন। এ সময় ছাত্রদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পরে।
এরপর শিক্ষক ও স্থানীয় লোকদের হস্তক্ষেপে পরিবেশ শান্ত হয়। এ ব্যাপারে প্রধান শিক্ষক চন্দন কুমার চৌধুরী বলেন, সকাল সাড়ে ৭টার দিকে স্কুলের ছেলে মেয়েদের নিয়ে আমরা মিছিল বের করি, মিছিলে শিক্ষক, স্থানীয় লোকজনসহ স্কুল কমিটির লোকজন ছিলেন, মিছিলটি ইউনিয়ন অফিসের সামনে আসামাত্র চেয়ারম্যান রতিবাবু রুক্ষভাবে দমক দিয়ে মিছিল করতে বাধা দিয়ে জয়বাংলা বলা হবে কেন, দেশটাকি আওয়ামী লীগের, হেডমাষ্টারসাব এসব কি বলে উনি আমার শিক্ষক জয়চন্দ্র বিশ্বাস ও আবদুল লতিফ সাবকে বাজে কথাবার্তা বলে ইনসাল্ট করেছেন। এসব কথা শুনে ছাত্ররা উত্তেজিত হয়ে পড়লে আমরা তাদেরকে সরিয়ে দেই। বিষয়টি স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি সুমন রায় চৌধুরীকে অবগত করলে তিনি ইউএনও সাবকে অবগত করতে বলেন, আমি তাৎক্ষণিকভাবে ইউএনও ও মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মহোদয়কে অবগত করি।
এ ব্যাপারে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এম বায়েছ আলম জানান, বিষয়টি ইউএনও স্যার বলার পর ঘটনা স্থলে শ্যামারচর পুলিশ পাড়ির ইনচার্জসহ ফোর্স পাঠিয়েছি, পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। এ ব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান রতি কান্ত দাস বলেন, মিছিলে জয় বাংলা জয় বঙ্গ বন্ধু না বললে কি হয় না, এখানে আমরা বিরোধী দল রয়েছি, এতটুকুই বলেছি, কারো সাথে কথা কাটাকাটি হয়নি।

Print Friendly, PDF & Email