নেইমার জাদুতে জয়ে ফিরল বার্সেলোনা

0
147

স্পোর্টস ডেস্ক: নেইমার জাদুতে জয়ে ফিরেছে বার্সেলোনা। ছন্দে ফেরার ম্যাচে রায়ে ভায়েকানোকে বড় ব্যবধান হারিয়েছে লা লিগার শিরোপাধারীরা। লুইস এনরিকের দলের জয়ে চার গোলে করেছেন নেইমার। বার্সেলোনার ৫-২ ব্যবধানের জয়ে অন্য গোলটি করেছেন লুইস সুয়ারেস। ভায়েকানোকে এগিয়ে নেওয়া গোলটি করেন জাভি গুয়েররা। অতিথিদের অন্য গোলটি করেন সোসাবেদ।

শনিবার কাম্প নউয়ে লিওনেল মেসি ও আন্দ্রেস ইনিয়েস্তাকে ছাড়া খেলতে নামা বার্সেলোনা প্রথমার্ধে অসংখ্য সুযোগ তৈরি করে। তবে এই অর্ধে তাদের দুটি গোলই আসে পেনাল্টি থেকে নেইমারের লক্ষ্যভেদে। নিজেদের মাঠে ষষ্ঠ মিনিটে এগিয়ে যেতে পারতো বার্সেলোনা। সের্হি রবের্তোর অসাধারণ এক ক্রস খুঁজে পায় অরক্ষিত ইভান রাকিতিচকে। তার শট ঠেকিয়ে সেবার অতিথিদের বাঁচান গোলরক্ষক তোনো।

চার মিনিট আরেকটি সুবর্ণ সুযোগ হাতছাড়া করেন সুয়ারেস। সের্হিও বুসকেতস ডি বক্সে বল বাড়ান অরক্ষিত এই স্ট্রাইকারকে। তবে তিনি গোলরক্ষক বরাবর শট নেন।

প্রথম সত্যিকারের সুযোগটি কাজে লাগায় ভায়েকানো। বেবের চমৎকার ক্রস থেকে ক্লদিও ব্রাভোকে পরাস্ত করেন গুয়েররা; ম্যাচের আগে যিনি বলেছিলেন কাম্প নউ সফর করার এটাই সেরা সময়।

এগিয়ে যাওয়ার স্বস্তি বেশিক্ষণ থাকেনি অতিথি শিবিরে। লা লিগায় সর্বশেষ তিন ম্যাচের দুটিতে হারা বার্সেলোনা মরিয়া হয়ে ওঠে গোলের জন্য। কিন্তু রক্ষণ সামলে অতিথিরা সুযোগ পেলেই পাল্টা আক্রমণে গিয়ে স্বাগতিকদেরও পরীক্ষায় ফেলছিল।

ভায়েকানোর রক্ষণে ভীতি জাগানো নেইমারকে দিয়েগো লরেন্তে ফাউল করলে পেনাল্টি পায় বার্সেলোনা। ২২তম মিনিটে পেনাল্টি থেকে নিজেই গোল করেন ব্রাজিলের অধিনায়ক।

দুই মিনিট পর এগিয়ে যেতে পারতো বার্সেলোনা। কিন্তু গোলরক্ষককে একা পেয়েও লক্ষ্যভ্রষ্ট শট নেন সান্দ্রো রামিরেস।

২৮তম মিনিটে লক্ষ্যভ্রষ্ট শটে এগিয়ে নেওয়ার সুযোগ হাতছাড়া করেন নেইমার। ৩২তম মিনিটে নাচো মার্তিনেস ডি বক্সে নেইমারকে ফাউল করলে পেনাল্টি পায় বার্সেলোনা। প্রথমবার ডানদিক দিয়ে বল জালে পাঠানো নেইমার এবার বাঁদিক দিয়ে গোল করেন।

দুই মিনিট পরই খেলায় সমতা আসতে পারতো। প্যাট্রিক এবার্ট জোরালো শটে ব্রাভোকে ফাঁকি দিতে চেয়েছিলেন। কিন্তু ঝাঁপিয়ে সেই প্রচেষ্টা ব্যর্থ করে দেন তিনি।  ৩৯তম মিনিটে আবার ভায়েকোনোর ত্রাতা তোনো। সুয়ারেসের গড়ানো শট বাঁদিকে ঝাঁপিয়ে ঠেকিয়ে দেন তিনি।

Print Friendly, PDF & Email