ন্যায়সঙ্গত গণআন্দোলনের বিজয় অনিবার্য: বিএনপি

0
170

Salah Uddin Ahmed
ঢাকা: ন্যায়সঙ্গত গণআন্দোলনের বিজয় অনিবার্য। আর আওয়ামী একনায়কতান্ত্রিকতা ও স্বৈরতান্ত্রিকতা থেকে জাতিকে মুক্ত করার জন্যই জনগণের এই আন্দোলন চলছে বলে জানিয়েছেন বিএনপি’র যুগ্ম মহাসচিব সালাহ উদ্দিন আহমেদ। রোববার বিকেলে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সংবিধানের পঞ্চদশ সংশোধনীর মাধ্যমে পবিত্র সংবিধানকে আওয়ামী লীগের দলীয় ঘোষণাপত্র ও গঠনতন্ত্রে পরিণত করেছে। ইতোপূর্বে চতুর্থ সংশোধনীর মাধমে বাকশাল কায়েম করেও তারা একই কর্ম করেছিল। দুটো সংশোধনীর মর্মার্থ একই, অর্থাৎ সকল বিরোধী দল নিশ্চিহ্ন করে শুধুমাত্র আওয়ামী লীগ একদলীয় সরকার ও একদলীয় রাষ্ট্রব্যবস্থা কায়েম করবে। মূলত: একদলীয় শাসন ও রাষ্ট্রব্যবস্থা প্রতিষ্ঠাকরণই আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক মেনিফেস্টো।
তিনি বলেন, ‘অবশেষে অর্থমন্ত্রী মাল মুহিত স্বীকার করলেন- ঢাকার বাইরের সারাদেশের অবস্থা অত্যন্ত নাজুক। অন্তত: এটি তার রাবিশ বক্তব্য নয় বলে আমি মনে করি। আমি তাকে এবং তার অবৈধ সরকারকে আহবান জানাই-সময় থাকতে পতনের পদধ্বনি শুনুন, দ্রুত পদত্যাগ করে ‘দেশ বাঁচান, মানুষ বাঁচান’।’
এফবিসিসিআই এর দলবাজ সভাপতির কারণে ব্যবসায়ী সমাজের বক্তব্য সরকারের কর্ণকুহরে প্রবেশ করছেনা। সরকার প্রধানের রাজনৈতিক ভুল সিদ্ধান্তের কারণেই চলমান রাজনৈতিক সংকট ও অস্থিরতার সৃষ্টি হয়েছে। তিনি আরো বলেন, ‘অতএব, স্থিতিশীল রাজনৈতিক পরিবেশ সৃষ্টির লক্ষ্যে সরকারকে দ্রুত পদত্যাগের পরামর্শ প্রদান করুন। নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের মাধ্যমে সত্যিকারের জনপ্রতিনিধিত্বশীল সংসদ ও সরকার প্রতিষ্ঠিত হলে ব্যবস্থাবান্ধব স্থিতিশীল পরিবেশ নিশ্চিত হবে।’
সালাহ উদ্দিন বলেন, ‘প্রশ্নপত্র ফাঁস এবং গণহারে পাশ করিয়ে দিয়ে সমগ্র শিক্ষাব্যবস্থাকে নিলামে উঠিয়ে প্রধানমন্ত্রী ও বেচারা শিক্ষামন্ত্রী পরীক্ষার্থীদের জন্য মায়াকান্না করছেন। ১৯৯৫-৯৬ সালের আওয়ামী নৈরাজ্য ও তা-বের কারণে এসএসসি পরীক্ষা তিন মাস পেছাতে বাধ্য হয়েছিল তৎকালীন বিএনপি সরকার। স্বাধীনতা পরবর্তী আওয়ামী সরকার ও পরবর্তীকালের তাদের প্রত্যেক শাসনামলেই দেশের শিক্ষাব্যবস্থা ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে উপনীত হয়েছিল। বিগত বিএনপি সরকারের সময়েই দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে দেশের শিক্ষাব্যবস্থাকে নকলমুক্ত ও আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করতে আমরা সক্ষম হয়েছিলাম।’
তিনি আরো বলেন, দেশের সকল পরীক্ষার্থী, অভিভাবক, ব্যবসায়ী, চাকুরীজীবী, পেশাজীবী, বুদ্ধিজীবী, সুশীল সমাজসহ শ্রেণি পেশা নির্বিশেষে আপামর জনসাধারণকে আহবান জানাই-আপনারা সম্মিলিতভাবে গণতন্ত্র মুক্তি আন্দোলনের পতাকাতলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে অবৈধ সরকারকে পদত্যাগে বাধ্য করুন। তাহলেই দেশের সকল মানুষের অভিপ্রায় অনুযায়ী প্রকৃত জনপ্রতিনিধিত্বশীল জবাবদিহীমূলক সংসদ ও সরকার প্রতিষ্ঠিত হবে এবং স্থিতিশীল রাজনৈতিক পরিবেশ নিশ্চিত হবে।
তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রীর হুকুমে সারাদেশে বিচারবহির্ভূত হত্যাকা-ের মহৌৎসব করছে দলবাজ আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তারা। প্রতিবাদী মিছিলে নির্বিচারে গুলিবর্ষণ অব্যাহত রয়েছে। খুন, গুম, অপহরণ, হামলা মামলার শিকার হচ্ছে রাজপথের অসীম সাহসী আন্দোলনকারী সাথীরা। গণগ্রেফতারের শিকার হচ্ছে প্রতিনিয়ত অসংখ্য বিরোধী দলীয় নেতা-কর্মী ও নিরীহ সাধারণ জনগণ।
সালাহ উদ্দিন জানান, গতকাল (শনিবার) ঢাকার শ্যামলী এলাকায় মিছিল থেকে চার শিবির কর্মীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তন্মধ্যে শিবির নেতা জসীম উদ্দিন হাওলাদারকে ক্রসফায়ারে হত্যা করে এবং অন্য তিন জন শিবির নেতা সজীব, আবদুল মান্নান ও আবদুল্লাহকে পুলিশ গ্রেফতার করলেও এখনও স্বীকার করেনি। এছাড়া ঢাকার কলাবাগান থানার পুলিশ শিবির নেতা আবু হাসানকে বাসা থেকে থানায় ডেকে নিয়ে পা’য়ে গুলি করে। কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে জামায়াত নেতা বেলায়েত হোসেন মজুমদার ও বেলাল হোসেন পন্ডিতকে একই কায়দায় বাসা থেকে ডেকে নিয়ে থানায় নিয়ে গিয়ে পা’য়ে গুলি করে। আমরা সরকারের পেটোয়া পুলিশ বাহিনীর এহেন ঘৃণ্য হত্যাকা- ও বন্দুকবাজির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং এই মর্মে হুঁশিয়ার করছি যে, ক্ষমতার পট পরিবর্তন হলে এই সকল হত্যাকা-ের ও নির্মম বন্দুকবাজির প্রত্যেকটি ঘটনায় দায়ী ব্যক্তিদের বিচার করা হবে। এছাড়া প্রতিনিয়ত বিএনপি, জামায়াতসহ ২০ দলীয় জোটের অসংখ্য নেতা-কর্মীরা যারা এ জাতীয় হত্যাকা-ের ও বন্দুকবাজির শিকার হচ্ছে তার প্রত্যেকটি ঘটনার বিচার করা হবে।
তিনি বলেন, খালেদা জিয়াকে সকল যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন অবস্থায় অঘোষিতভাবে গৃহবন্দী করে রাখা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ইইউসহ পৃথিবীর সকল উন্নত রাষ্ট্রসমূহ, জাতিসংঘসহ সকল বিশ্বসংস্থা, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সকল মানবাধিকার সংস্থাগুলোর উদ্বেগ জানানো সত্ত্বেও অবৈধ আওয়ামী সরকারের টনক নড়ছেনা।
তিনি আরো বলেন, বিএনপিসহ ২০ দলীয় জোটের সকল নেতা-কর্মী ও সকল গণতন্ত্রকামী দেশবাসীকে চলমান শান্তিপূর্ণ অবরোধ ও হরতাল কর্মসূচি পালনের মধ্য দিয়ে এই অবৈধ সরকারের পতন নিশ্চিত করার আহবান জানাই।

Print Friendly, PDF & Email