পুরনো দিনের কথা ভুলে যেতে চাই: সারিকা

0
41

অনেকটা অগোছালো জীবন পার করে মাসকয়েক ধরে কাজে নিয়মিত হয়েছেন সারিকা। পুরনো দিনের কথা ভুলে এবং ভুল স্বীকার করে কাজ করে যাচ্ছেন আপন মনে। এখন থেকে নিয়মিতই কাজ করবেন বলে জানান এই অভিনেত্রী। গতানুগতিক কাজে নিজেকে ভাসিয়ে দিতে চান না। কাজ করতে চান ব্যতিক্রমী ধাঁচের গল্পে ও চরিত্রে। সময়ের সাথে নিজেকে খাপ খাইয়ে নিতে চান। কথা প্রসঙ্গে বললেন, পুরনো দিনের কথা ভুলে যেতে চাই।

প্রসঙ্গত, বিচ্ছেদের পর শোবিজ থেকে হারিয়ে যান মডেল ও অভিনেত্রী সারিকা। দেখা মিলত না কোনো কাজে, সেইসঙ্গে শুটিং ফাঁসানোসহ নানান অভিযোগ উঠেছিল তার বিরুদ্ধে। শুধু তাই নয়, সবার সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়েছিলেন এই অভিনেত্রী। তাকে ফোনে পাওয়াটা সোনার হরিণের মতো হয়ে গিয়েছিল।

সারিকা বলেন, এখন তো কাজ করছি। ২০১৬ সালে যখন বিরতি কাটিয়ে ফিরেছিলাম তখন শুধু বিশেষ দিবসের কাজগুলো করা হতো। এর বাইরে সময় দিতে পারতাম না। কারণ সে সময় আমার মেয়ে অনেক ছোট ছিল। এখন একটু বড় হয়েছে। তাই এখন মোটামুটি কাজ করে যাচ্ছি। গত রোজার ঈদ থেকে একেবারে নিয়মিত কাজ করছি।
২০১৪ সালে ব্যবসায়ী মাহিম করিমের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়ান এবং সে বছরই বিয়ে করেন। বিয়ের পর থেকেই অভিনয়ে অনিয়মিত হয়ে পড়েন। বিয়ের এক বছরের মাথায় সারিকার কোলজুড়ে আসে কন্যাসন্তান। সেই বছরেই তাদের ডিভোর্স হয়ে যায়।

বিয়ে এবং বিচ্ছেদ নিয়ে তখন কিছু না বললেও এখন তিনি জানান, বিয়ের জন্য নিজের সফল ক্যারিয়ার সেক্রিফাইস করেছি। শুধু তাই নয়, বাবা-মা থেকেও দূরে থেকেছি। তাদের অবাধ্য হয়ে যা করেছি, সেটা ভুল ছিল। সব সেক্রিফাইস করে যেহেতু বিয়েটা করেছিলাম, তাই সেটা টিকিয়ে রাখতে আমার শতভাগ নয় দুইশত ভাগ চেষ্টা ছিল। তারপরও সেটা টিকাতে পারিনি।

কম বেশি প্রতিটা দম্পতির মধ্যে কিছু ঝামেলা থাকেই। কিন্তু সে ঝামেলাগুলো যখন কোনোভাবেই সমাধান করা যায় না, কোনোভাবেই আর বনিবনা হয় না তখন আমার মনে হয় দুজনই টর্চার্ড হওয়ার থেকে সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে যাওয়াই সবচেয়ে ভালো সিদ্ধান্ত। আমি সেটাই করেছি।

নতুন করে কাজে ফিরে কি রকম পরিবর্তন দেখতে পাচ্ছেন, এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, কাজের ধারা কিছুটা পরিবর্তন হয়েছে। এখন যেমন অনলাইন প্লাটফর্ম ধরে কাজ করা হয়, যেটা আমার সে সময়ে শুরু হয়নি। কিন্তু এখন এটা চলমান। কিছুটা ধারা তো বদলেছেই। আর আমার সে সময়টাতে আমি ততটা ম্যাচিউরডও ছিলাম না। এত বেশি বুঝতামও না নিজের ক্যারিয়ার সম্পর্কে, এখন যেটা বুঝি। এখন অনেক কিছু বুঝতে শিখেছি। সচেতন হয়ে কাজ করছি। দেখা যাক কি হয়।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আগে মোটামুটি সরব থাকলেও এখন নেই। তার ফেসবুক আইডি হ্যাকড হয়েছে বলে জানান তিনি। তিনি বলেন, দেড় বছর আগেই আমার ফেসবুক আইডি হ্যাকড হয়। রিকভার করার চেষ্টা প্রথমে করেছিলাম। পরে পাইনি। তখন দেখলাম ফেসবুক ছাড়া ভালোই কাটছে সময়। দেখেছি, ফেসবুকের কারণে অনেকটা সময় নষ্ট হতো। এখন সে সময়টা আমার মেয়ে, পরিবার কিংবা কাজে দিতে পারছি। যখন দেখেছি ফেসবুক ছাড়া থাকতে পারছি তখন আর নতুন করে ফেসবুক খোলার চিন্তা করিনি। আমি যখন কোনো কিছুতে নিজের সময়টা দেই, তখন ওই পুরো সময়টা শুধু ওখানেই দেই।

Print Friendly, PDF & Email