পোষাক খাতের ক্ষতি করতে অদৃশ্য শক্তি কাজ করছে: বাণিজ্যমন্ত্রী

0
149

ঢাকা: বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, বিশ্বের অনেক দেশ বাংলাদেশের পোষাক খাতের উন্নয়নকে ভালভাবে দেখে না। এ কারণে এই খাতের ক্ষতি করতে অদৃশ্য শক্তি কাজ করছে। শুক্রবার রাজধানীর ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) ‘মিট দ্য রিপোর্টার্স’-এ মন্ত্রী এ কথা বলেন। তোফায়েল আহমেদ বলেন, বাংলাদেশের পোষাক খাত এগিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু এই খাতকে পিছিয়ে দিতে একের পর এক দুর্ঘটনা ঘটছে। এর পেছনে অদৃশ্যশক্তি আছে ও মনে রাখতে হবে আমাদের অনেক প্রতিযোগী আছে।
রানা প্লাজা, তাজরীন ফ্যাশন, হলি আর্টিসানের ঘটনায় বাংলাদেশের পোষাক খাতের ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানান বাণিজ্যমন্ত্রী। আশুলিয়া এর সর্বশেষ উদাহরণ উল্লেখ করে তিনি বেলেন, আশুলিয়ায় আকস্মিক ঘটনা ঘটেছে। এর আগে বেশ কয়েকদফা শ্রমিকদের মজুরি বাড়ানো হলেও তারা আলোচনা ছাড়াই রাজপথে নেমেছে। কিন্তু এবার বিজিএমইএ বলেছে তারা কোন ছাড় দিবে না। সরকার তাদের এই সিদ্ধান্তের সাথে একমত।
মন্ত্রী জানান, আশুলিয়ায় ৯০ টিরও বেশি শ্রমিক সংগঠন রয়েছে। এরা দোকান খুলে বসেছে। শ্রমিকদের কাছ থেকে নিয়মিত চাঁদা সংগ্রহ করে। এই সব সংগঠনের নেতারা অনেকে টাকার মালিকও হয়ে গেছে। এরাই পোষাক খাতের ক্ষতি করার চেষ্টা করছে। বর্তমান সরকার ব্যবসাবান্ধব সরকার বিধায় বাংলাদেশ বিশ্বের কাছে এখন উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে গণ্য হচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন তোফায়েল আহমেদ।
তিনি জানান, স্বল্পোন্নত ৪৮টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশ সবচেয়ে বেশি পণ্য রফতানি করে। এছাড়া উন্নয়নশীল শ্রীলংকা, কেনিয়া ও মালদ্বীপের চেয়ে এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ। ২০২১ সালে বাংলাদেশ থেকে ৫০ বিলিয়ন ডলারের তৈরি পোষাক রফতানি করা হবে। বিশ্বের ১২২টি দেশে ওষুধ রফতানি সময়সীমা ১৭ বছর বাড়িয়ে ২০৩৩ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত করা হয়েছে।
এদিকে ৫ হাজার ডিজিটাল সেন্টার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, এর ফলে অধিকাংশ কাজকর্ম এখন অনলাইনে করা যায়। ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন রূপকথার মধ্যে নেই, বাংলাদেশ এখন বাস্তবে ডিজিটাল।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ডিআরইউ সভাপতি শাখাওয়াত হোসেন বাদশা। এ সময় সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক মুরসালিন নোমানীসহ কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email