প্রকৃত সত্যকে আড়াল করতে ফাহিমকে ক্রসফায়ারে হত্যা: রিজভী

0
155

ঢাকা: গোলাম ফায়জুল্লাহ ফাহিমকে (২০) ‘ক্রসফায়ারে হত্যা করে’ সরকার প্রকৃত সত্যকে আড়াল করার চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি। জঙ্গিবাদ দমনের নামে সরকারের অভিযান জনমনে প্রশ্ন তৈরি করেছে বলেও মন্তব্য করেছে দলটি। শনিবার রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের এ বক্তব্য তুলে ধরেন সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। ফাহিম নিহত হওয়ার বিষয়ে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, সরকার তাকে (ফাহিম) ক্রসফায়ারে হত্যা করলেন। হত্যা করার মানে একটা জিনিসকে তিনি আড়াল করলেন। তিনি এটাকে সামনে আসতে দিলেন না। তার মানে আপনারা এখন বোঝেন, আমরা গতকালই বলেছি, প্রতিটি টেরোরিজমের সাথে স্টেটের, রাষ্ট্রের একটা সম্পর্ক থাকে। আমরা যে বারবার বলছি, দলের পক্ষ থেকে বারবার বলা হচ্ছে এবং আমাদের সংগ্রামী নেত্রী দলের চেয়ারপারসন বলেছেন যে, এই উগ্রপন্থার সাথে, উগ্রবাদী চক্রের সাথে সরকার জড়িত। এই যে আজকের যে ঘটনাটি, এই ঘটনাটিতে আবারও সুপ্রমাণিত হলো যে, এই জঙ্গিবাদ এবং এই কর্মকান্ডের যে ঘনকুয়াশা তৈরি করেছেন সরকার, এগুলোর মধ্যে সরকার জড়িত। তিনি বলেন, জঙ্গি দমনের নামে প্রহসনের এক চরম নাটক অনুষ্ঠিত করছে সরকারি দায়িত্বশীল লোকেরা। মামলা হচ্ছে, তদন্ত হচ্ছে, কিন্তু কুপিয়ে হত্যাকারী প্রকৃত অপরাধীরা অধরাই থেকে যাচ্ছে। হত্যা রহস্যের কোন কূল-কিনারাই বের হচ্ছে না।

তিনি বলেন, সরকারি বাহিনী ক্ষুধার্থ নেকড়ের মতো গ্রাম, শহর, নগর, বন্দরে হামলা করেছে। বিরোধী দলের নেতা-কর্মীরা যারা গ্রেপ্তার হয়নি তারা দিশেহারা হয়ে প্রাণ ভয়ে অজানা গন্তব্যে পাড়ি জমিয়েছে। সরকার জঙ্গি তৎপরতা দমন করতে যে নিষ্ঠুর পদ্ধতি গ্রহণ করেছে সেটিতে প্রকৃতপক্ষে জঙ্গিদের উৎপাত বন্ধ নয়, বরং সরকার যে একটা বিশেষ এজেন্ডা নিয়ে কাজ করেছে, সেটি এখন সুস্পষ্টভাবে প্রতিভাত হচ্ছে। তাদের সেই এজেন্ডাটা হচ্ছে বিএনপিসহ গণতান্ত্রিক আন্দোলনের কর্মীদের জঙ্গি হিসেবে চিত্রিত করা। তিনি বলেন, পবিত্র রমজান মাসেও সারাদেশে চলছে সরকারি নিপীড়নের তীব্র ছোবল। দেশব্যাপী জঙ্গি দমনের নামে বিএনপির সাধারণ সমর্থকদের থেকে শুরু করে, নেতা-কর্মীদের পুলিশ গ্রেপ্তার করে জেলে পুড়েছে। সাধারণ নিরীহ নিরাপরাধ মানুষও সরকারের গ্রেপ্তারি অভিযান থেকে রেহাই পাননি।

Print Friendly, PDF & Email