প্রতিবাদ করায় ধর্ষিতার চাচাকে কুপিয়ে হত্যা

0
293

মৌলভীবাজার: মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে চতুর্থ শ্রেণির ধর্ষিত এক ছাত্রীকে নিয়ে বাজে মন্তব্যের প্রতিবাদ করায় ওই ছাত্রীর চাচাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে এক দুর্বৃত্ত। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর বাবাও গুরুতর আহত হয়েছেন। বুধবার রাতে শ্রীমঙ্গল উপজেলার ভূনবীর ইউনিয়নের পশ্চিম লইয়ারকুল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ভূনবীর ইউনিয়নে পশ্চিম লইয়ারকুল গ্রামের চেরাগ আলীর ছেলে আহাদ মিয়া ওই ছাত্রীকে নিয়ে বাজে করলে এর প্রতিবাদ করে মেয়ের বাবা ও চাচা সিরাজ মিয়া। এ সময় মেয়ের বাবা ও চাচা সিরাজ মিয়াকে ছুরিকাঘাত করে আহাদ আলী। এতে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে সিরাজ মিয়া নিহত হন। আর মেয়ের বাবাকে গুরুতর আহত অবস্থায় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছে।

শ্রীমঙ্গল থানার ওসি (তদন্ত) সোহেল রানা বলেন, ধর্ষিত স্কুলছাত্রীর বাবা ও চাচাকে দেখে নানা অশ্লীল ভাষা ব্যবহার করে আহাদ। এ সময় তারা প্রতিবাদ করলে আহাদ তাদের ছুরিকাঘাত করে। এতে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হয়ে মেয়েটির চাচা সিরাজ মিয়ার মৃত্যু হয়। আর মেয়েটির বাবাকে উদ্ধার করে প্রথমে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে সেখান থেকে তাকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়।

তিনি আরও বলেন, আহাদ ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেফতার যুবকের কোনো আত্মীয় নয়। কেন সে এ রকম কাজ করল, তা এখনই বলা যাচ্ছে না। কারণ ঘটনার পরপরই আহাদ পালিয়ে যায়। তবে তাকে গ্রেফতারে বিশেষ অভিযান চালানো হচ্ছে।

এদিকে রাতে মৌলভীবাজারের পুলিশ সুপার মো. শাহজালাল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এদিকে হত্যাকারী আহাদকে ধরিয়ে দিলে ৫০ হাজার টাকা পুরষ্কারের ঘোষণা দিয়েছে শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশ।

এর আগে, মঙ্গলবার শ্রীমঙ্গলে চতুর্থ শ্রেণির এক ছাত্রীকে (৯) ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে। এ ঘটনায় জামাল মিয়া (২০) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

Print Friendly, PDF & Email