প্রধানমন্ত্রী সেনাবাহিনীর সম্মানহানি করেছেন: সালাহ উদ্দিন

0
300

Salah Uddin Ahmed
ঢাকা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উত্তরপাড়ার ক্ষমতা দখলের আশঙ্কা প্রকাশ করে সেনাবাহিনীর সম্মানহানি করেছেন বলে মন্তব্য করেছেন বিএপির যুগ্ম মহাসচিব সালাহ উদ্দিন আহমেদ।

তিনি বলেন, মঈনুদ্দিন-ফখরুদ্দিনের সরকারের সকল কর্মকাণ্ডের বৈধতা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েই আওয়ামী লীগ ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হয়েছিল। সুতরাং কারা অসাংবিধানিক ও অগণতান্ত্রিক শক্তিকে বারবার আহবান করেছে, স্বাগত জানিয়েছে এবং বৈধতা দিয়েছে সেই ইতিহাস এদেশের জনগণ জানে।

সোমাবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এসব কথা বলেন তিনি।

বিবৃতিতে সালাহ উদ্দিন আহমেদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী রোববার উত্তরপাড়ার ক্ষমতা দখলের আশঙ্কা প্রকাশ করে রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানের সম্মানহানি করেছেন। প্রহসনের নির্বাচনের মাধ্যমে দখলকৃত অবৈধ ক্ষমতা হারানোর শঙ্কা ও আসন্ন নির্মম পরিণতির ভাবনার কথাই তাতে প্রকাশিত হয়েছে স্বাভাবিকভাবেই।

সেনাবাহিনীর সাথে আওয়ামী লীগের সখ্যতা ছিল অভিযোগ এনে সালাহ উদ্দিন বলেন, এদেশের জনগণ জানে-আওয়ামী লীগের পক্ষে তিনি (শেখ হাসিনা) ১৯৮২ সালে সামরিক সরকারকে স্বাগতম জানিয়েছিলেন; ১৯৮৬ সালে এরশাদের স্বৈরশাসনকে বৈধতা দেয়ার জন্য সংসদ নির্বাচনে অংশ নিয়ে ৭ম সংশোধনীর মাধ্যমে এরশাদের স্বৈরশাসনকে বৈধতা দেন।

মঈনুদ্দিন-ফখরুদ্দিনের শাসনামলের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০০৭ সালের মঈনুদ্দিন-ফখরুদ্দিনের ১/১১ এর মাধ্যমে অবৈধভাবে ক্ষমতা দখলকে স্বাগত জানিয়ে বলেছিলেন-তাদের লগি-বৈঠার নরহত্যার আন্দোলনের ফসল ছিল সেই সরকার এবং তাদের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে পুরোপুরি বৈধতা দেন।

সেই মঈনুদ্দিন-ফখরুদ্দিনের সরকারের সকল কর্মকাণ্ডের বৈধতা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে আওয়ামী লীগ ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হলো। বলা বাহুল্য, তিনি (শেখ হাসিনা) তাদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেননি বরং তাদেরকে পুরস্কৃত করে প্রতিশ্রুতি রক্ষা করেছেন। সুতরাং কারা অসাংবিধানিক ও অগণতান্ত্রিক শক্তিকে বারবার আহবান করেছে, স্বাগত জানিয়েছে এবং বৈধতা দিয়েছে সেই ইতিহাস এদেশের জনগণ জানে।

বিএনপি গণতন্ত্রে বিশ্বাসী উল্লেখ করে সালাহ উদ্দিন বলেন, বিএনপি গণতন্ত্রে বিশ্বাসী। বহুদলীয় গণতন্ত্রের পুণ:প্রতিষ্ঠাকারী দেশের একটি নিয়মতান্ত্রিক সর্ববৃহৎ রাজনৈতিক দল। অগণতান্ত্রিক কোন পন্থাকে বিএনপি কখনো স্বীকৃতি দেয়নি। বরং আওয়ামী লীগের স্বৈরতান্ত্রিক, একনায়কতান্ত্রিক, নৈরাজ্যকর মানসিকতা ও কর্মকাণ্ডের কারণেই অগণতান্ত্রিক শক্তির উদয় হয়েছে প্রতিবার।
তিনি বলেন, দেশ ও জাতির গর্ব সেনাবাহিনী তাদের সুনাম অক্ষুন্ন রেখে নিজেদের উপর অর্পিত দায়িত্ব পালন করে আসছে। রাষ্ট্রের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব রক্ষার অতন্দ্র প্রহরী জাতীয় সেনাবাহিনীকে আমরা কখনোই বিতর্কে জড়াতে চাইনা।

Print Friendly, PDF & Email