ফেসবুকে অবৈধ লেনদেন ঠেকাতে ইসির উদ্যোগ

0
43

নিউজ ডেস্ক, ঢাকা: ফেসবুকে ভুয়া পেজ, গ্রুপ ও আইডি খুলে জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) সেবা দেওয়ার নামে হচ্ছে অবৈধ আর্থিক লেনদেন। এছাড়া বিভ্রান্তিমূল তথ্য প্রচার করে নষ্ট করা হচ্ছে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) ভাবমূর্তি।

তাই জনপ্রিয় এ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে সব অস্বীকৃত পেজ, গ্রুপ ও প্রোফাইল বন্ধ করা জন্য ব্যবস্থা নিচ্ছে সংস্থাটি।

সম্প্রতি এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বিটিআরসি চেয়ারম্যানকে আইডিইএ প্রকল্প (দ্বিতীয় পর্যায়)-এর প্রকল্প পরিচালকের পক্ষে স্কোয়াড্রন লিডার (উপ-প্রকল্প পরিচালক, কমিউনিকেশন) কাজী আশিকুজ্জামান চিঠি দিয়েছেন। এছাড়া আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকেও একই চিঠি দেওয়া হয়েছে।

৮৬টি ফেসবুক পেজ, ৮৯টি গ্রুপ ও ১৪টি ফেসবুক আইডি থেকে এই কর্মকাণ্ড চালানো হচ্ছে বলে চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে। বলা হয়েছে, ইসি তথা জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের বিভিন্ন প্রচার-প্রচারণা পরিচালনা, এনআইডি সম্পর্কিত সমস্যা সমাধান ও নানা ধরনের তথ্য নাগরিকের কাছে দ্রুত ও সহজে পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে একটি ফেসবুক পেজ পরিচালনা করা হয়। পেজের নাম ‘National ID Card- জাতীয় পরিচয়পত্র’ এবং তার ওয়েব অ্যাড্রেস www.facebook.com/bd.nid।

সম্প্রতি জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের নাম বা পরিচয় ব্যবহার করে যে ভুয়া পেজগুলো পরিচালিত হচ্ছিল, তার তালিকা পাঠানো হয়েছিল। ইতোমধ্যে অধিকাংশ বন্ধ হলেও পরিলক্ষিত হচ্ছে এখনো কিছু কিছু পেজ, গ্রুপ ও ভুয়া আইডি বন্ধ হয়নি এবং অনেকগুলো নতুন পেজ, গ্রুপ ও ভুয়া আইডি দেখা যাচ্ছে। এগুলো মাধ্যমে বিভ্রান্তিমূলক তথ্য ও ভিডিও প্রচারসহ অবৈধভাবে আর্থিক লেনদেনের মাধ্যমে নাগরিকদের সঙ্গে প্রতারণা করা হচ্ছে।

পেজগুলোর মাধ্যমে প্রচারিত বিভ্রান্তিমূলক তথ্যের কারণে জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগ তথা নির্বাচন কমিশনের ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে। তাই জনগুরুত্বপূর্ণ ও ব্যক্তিগত তথ্য নিরাপত্তার বিবেচনায় এসব অবৈধ পেজ, গ্রুপ ও ভুয়া আইডি অনতিবিলম্বে বন্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুরোধও করা হয়েছে চিঠিতে।

ভুয়া ফেসবুক পেজ, গ্রুপ ও আইডি’র মাধ্যমে প্রতারণা বন্ধে গঠিত ইসির মনিটরিং টিমের প্রধান কাজী আশিকুজ্জামান বলেন, আমরা এর আগেও বেশ কয়েকবার বিটিআরসিসহ বিভিন্ন সংস্থার কাছে এসব ভুয়া ফেসবুক পেজ, গ্রুপ ও আইডি বন্ধের জন্য চিঠি দিয়েছি। সম্প্রতি আবার এই বিষয়ে চিঠি দেওয়া হয়েছে। নাগরিকেরা যাতে অযথা ভুয়া পেজ, গ্রুপ, আইডি’র মাধ্যমে প্রতারিত না হন, সেজন্য এগুলো দ্রুত বন্ধ করতে সংশ্লিষ্টদের কাছে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

এর আগে ২০২০ সালের ১১ মে ৩১টি পেজ, নয়টি গ্রুপ ও ১৮টি আইডি; ১৫ জুন ৩৮টি পেজ, দশটি গ্রুপ ও চারটি আইডি এবং চলতি বছর ৭ জানুয়ারি পাঁচটি পেজ, ৪৭টি গ্রুপ ও ছয়টি ফেসবুক আইডি বন্ধের জন্য বিটিআরসিকে চিঠি দেয় নির্বাচন কমিশন।

Print Friendly, PDF & Email