বাংলাদেশে সংঘটিত হামলাগুলো সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে দেখছে জাতিসংঘ

0
347

নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশে সংঘটিত অব্যাহত হামলার ঘটনার বিষয়টি সর্বোচ্চ গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করছে জাতিসংঘ বলে জানিয়েছেন সংস্থাটির মহাসচিবের মুখপাত্র স্টিফেন ডুজারিক। বৃহস্পতিবার নিউ ইয়র্কের জাতিসংঘ সদর দফতরে নিয়মিত প্রেস ব্রিফিংয়ে একথা জানান তিনি।

এদিকে ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে জাতিসঙ্ঘ মহাসচিব কোনো বাণী না দেয়ায় সাংবাদিকদের কড়া সমালোচনার মুখে পড়েন মহাসচিবের এই মুখপাত্র।

বাংলাদেশের প্রসঙ্গ টেনে এক বিদেশী সাংবাদিক জানতে চান, ইসলামিক বিশ্বে বিশেষ করে তুরস্ক থেকে ইরাক, ইরাক থেকে বাংলাদেশে যে রক্তাক্ত হামলা হচ্ছে জাতিসংঘ মহাসচিব কিংবা সদর দফতর বিষয়টি কিভাবে দেখছে। আপনার কাছে এব্যাপারে কী তথ্য আছে। কিছু কিছু ক্ষেত্রে বিশেষ করে বাংলাদেশের ক্ষেত্রে দায়েস ও আইসিস-এর নাম উঠে এসেছে। আর (বাংলাদেশের) এই ঘটনায় শত্রুদের উপাদান লক্ষ্য করা মতো। জাতিসংঘের পক্ষ থেকে দেশটির(বাংলাদেশের) সঙ্গে কেউ কি কথা বলেছে?

জবাবে স্টিফেন ডুজারিক বলেন আমরা অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে বিষয়টি নিয়েছি এবং আমি বাংলাদেশ, সৌদি আরব ও তুরস্কের ব্যাপারে দেয়া যে বিবৃতি দিয়েছি তার দিকে আপনাকে নজর দেবার অনুরোধ করছি। আর আমরা বাগদাদসহ গত সপ্তাহে মর্মান্তিক যে উগ্রবাদী গোষ্ঠীর হামলা লক্ষ্য করেছি তাতে বেশিরভাগই মুসলমানদের দ্বারা মুসলমানরাই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। আর এই হামলাগুলো তখনই হলো যখন মুসলমানদের একটি পবিত্র সময় অতিবাহিত হচ্ছিল।

এদিকে, মুসলমানদের দুই ঈদ উপলক্ষ্যে জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন প্রতিবছর রেওয়াজ অনুযায়ী বাণী প্রকাশ করে থাকেন। কিন্তু এবারই প্রথম তিনি এই দিনে বাণী দেননি। এবিষয়ে সাংবাদিকদের জেরার মুখে পড়েন মুখপাত্র স্টিফেন ডুজারিক।

Print Friendly, PDF & Email