বাংলাদেশ ব্যাংকে বড় রদবদল

0
329

ঢাকা: রিজার্ভ চুরির ঘটনার ৩ মাস ও নতুন গভর্নরের দায়িত্ব গ্রহণের দেড় মাসের মাথায় বাংলাদেশ ব্যাংকে মহাব্যবস্থাপক পদমর্যাদায় বড় ধরনের রদবদল করা হয়েছে। রোববার ব্যাংকের মানবসম্পদ-১ বিভাগ (এইচআরডি) থেকে এ সংক্রান্ত অফিস আদেশ জারি করা হয়েছে। এতে একই বিভাগে দীর্ঘ ২২ বছর কর্মরত সেই বিতর্কিত মহাব্যবস্থাপক (জিএম) কাজী ছাইদুর রহমানসহ ছয় মহাব্যবস্থাপককে (জিএম) বদলির কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র শুভঙ্কর সাহা বলেন, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কার্যক্রমে গতি আনতে কিছু রদবদল করা হয়েছে। এ বিষয়ে রোববার একটি অফিস আদেশও জারি করা হয়েছে। ৪ ফেব্র“য়ারি যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংকে রক্ষিত বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ থেকে প্রায় ৮০০ কোটি টাকা চুরি হয়। অর্থ চুরির ঘটনা সরকারি মহলে যথাসময়ে না জানানোয় চাপের মধ্যে ১৫ মার্চ গভর্নরের পদ থেকে পদত্যাগ করেন ড. আতিউর রহমান। একই দিন দুই ডেপুটি গভর্নর আবুল কাসেম ও নাজনীন সুলতানাকেও সরিয়ে দেয়া হয়। পরদিন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে ৪ বছরের জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর হিসেবে ফজলে কবিরকে নিয়োগের আদেশ জারি করা হয়। ২০ মার্চ ফজলে কবির আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

ওইদিন ফজলে কবির সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন রিজার্ভ চুরির অর্থ উদ্ধার ও কেন্দ্রীয় ব্যাংক কর্মকর্তাদের আস্থা ফেরানো হবে তার প্রধান কাজ। এছাড়া রিজার্ভ চুরির ঘটনায় গঠিত সাবেক গভর্নর ড. মোহাম্মদ ফরাস উদ্দিনের কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে। এর আগে ১৬ মার্চ অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত কেন্দ্রীয় ব্যাংককে পুরোপুরি ঢেলে সাজানোর কথা জানিয়েছিলেন। ওই সময় তিনি বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের অবস্থা স্বাস্থ্যকর নয়। এর বিভিন্ন সিস্টেমে বড় ধরনের সংস্কার প্রয়োজন।

জানা গেছে, বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে ফরেক্স রিজার্ভ অ্যান্ড ট্রেজারি ম্যানেজমেন্ট ডিপার্টমেন্ট। প্রায় ২২ বছর ধরে এ বিভাগে কাজ করছেন কাজী ছাইদুর রহমান। কিন্তু ব্যাংকের বিধান অনুযায়ী টানা ৩ বছরের অধিক কেউ একই ডিপার্টমেন্টে কাজ করতে পারবেন না। রিজার্ভ চুরির ঘটনা প্রকাশের পর একই বিভাগে কাজী ছাইদুর রহমানকে টানা ২২ বছর রাখা নিয়ে নানা সমালোচনার জন্ম দেয়। তবে শেষ পর্যন্ত রোববার এ জিএমকে রংপুর অফিসে বদলি করা করা হয়েছে। তার স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন এইচআরডি-২ এর জিএম মো. আজিজুর রহমান। আর এইচআরডি-১ এর জিএম কাজী এনায়েত হোসেনকে এইচআরডি-২ এ দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। ফিন্যান্সিয়াল সেক্টর সাপোর্ট অ্যান্ড স্ট্র্যাটিজিক ডিপার্টমেন্টের (এফএসএসএসপিডি) জিএম জোয়ারদার ইসরাইল হোসেনকে গভর্নর সচিবালয়ে বদলি করা হয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংক ট্রেনিং একাডেমির (বিবিটিএ) জিএম জামাল মোল্লাকে দ্য সিকিউরিটি প্রিন্টিং কর্পোরেশন (বাংলাদেশ) লিমিটেডে বদলি করা হয়েছে। এছাড়া কাজী এনায়েত হোসেনকে এইচআরডি-২ এর জিএম হিসেবে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। আর এইচআরডি-১ এর মহাব্যবস্থাপক মো. সহিদুল ইসলামকে ফিন্যান্সিয়াল সেক্টর সাপোর্ট অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজিক ডিপার্টমেন্টে (এফএফএসপিডি) বদলি করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email