বায়ুদূষণ বিশ্বের জন্য মারাত্মক হুমকি: জাতিসংঘ

0
67
Dushito Poribesh Dhaka

নিউজ ডেস্ক : জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে মানুষের স্বাস্থ্যের ওপর প্রভাব নিয়ে প্রথমবারের মতো প্রতিবেদন প্রকাশ করল জাতিসংঘ। স্পেনের মাদ্রিদে জলবায়ু বিষয়ক ২৫তম সম্মেলনে বায়ুদূষণকে বিশ্ব স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক হুমকি উল্লেখ করা হয়।

এদিকে জার্মান ওয়াচের প্রকাশিত বৈশ্বিক জলবায়ু ঝুঁকি সূচক বলছে, বিরূপ আবহাওয়ার কারণে গত এক দশকে প্রায় পাঁচ লাখ মানুষ মারা গেছেন।
মাদ্রিদে চলমান জলবায়ু সম্মেলনের ফাঁকে এভাবেই বিশ্বের অন্যতম দূষিত শহর লন্ডন, বেইজিং, সাও পাওলো, নয়াদিল্লির বায়ুদূষণকে কৃত্রিমভাবে ফুটিয়ে তোলা হয়। জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে মানুষের স্বাস্থ্যের ওপর প্রভাব নিয়ে প্রথমবারের মতো জাতিসংঘ প্রকাশিত প্রতিবেদনেও বায়ুদূষণকে দায়ী করা হয়। এতে বলে হয়, জলবায়ু পরিবর্তন সংক্রান্ত দূষণের কারণে মানুষের স্বাস্থ্যে মারাত্মক প্রভাব ফেলছে। বৈশ্বিক স্বাস্থ্য ঝুঁকির পাশাপাশি জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে বন্যা, দাবানল, খরাকে অন্যতম চ্যালেঞ্জ আখ্যা দিয়ে বৈশ্বিক উষ্ণায়ণের সঙ্গে এগুলো সরাসরি সম্পর্কিত বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।
এদিকে জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে আবহাওয়াজনিত বিভিন্ন কারণে গত এক দশকে প্রায় পাঁচ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে পরিবেশ বিষয়ক সংগঠন জার্মান ওয়াচ। সংগঠনটির প্রকাশিত বার্ষিক জলবায়ু ঝুঁকি সূচকে বলা হয়, শুধু দরিদ্র দেশেই নয়, ধনী দেশগুলোতেও তীব্র দাবদাহের কারণে মৃতের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। ২০১৮ সালে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছে শিল্পোন্নত দেশ জাপান। ওই বছর দেশটির ৭০ হাজার মানুষ দাবদাহের শিকার হন। মারা যান ১৩৮ জন। জার্মানি ও ভারত রয়েছে তৃতীয় ও পঞ্চম অবস্থানে। দেশগুলো পানি সংকটসহ তীব্র খরার মুখোমুখি হয় বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।
একইদিন সম্মেলনে আন্তর্জাতিক জলবায়ু গবেষণা কেন্দ্র জানায়, বিশ্বব্যাপী কার্বন দূষণ এখনো আশঙ্কাজনকভাবে অব্যাহত রয়েছে। ২০১৯ সালে কার্বন নিঃসরণের পরিমাণ বেড়েছে শূন্য দশমিক ৬ শতাংশ। ২০০০ সালের তুলনায় নিঃসরণতো কমছেই না বরং কার্বন নিঃসরণ বাড়তে থাকায় উদ্বেগ প্রকাশ করেন পরিবেশ বিজ্ঞানীরা।
Print Friendly, PDF & Email