বিএনপি মহাসচিবের সিলেট সফর: ছাত্রদলের বিদ্রোহীরা ইন, আউট কমিটির নেতারা

0
122

ডেস্ক রিপোর্ট: বিগত দিনে আন্দোলন সংগ্রামে অনুপস্থিত থাকার দলের মহাসচিবের সফরেও অনুপস্থিত সিলেট ছাত্রদলের কমিটির নেতারা। শেষ পর্যন্ত পদ বঞ্চিত বিদ্রোহী ছাত্রদল নেতারাই সঙ্গি ছিলেন মহাসচিবের। শুক্রবার বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সিলেট সফর করে গেছেন। এদিন দুপুরে বিমানের একটি ফ্লাইটে সিলেট ওসমানী বিমানবন্দরে আসেন। হযরত শাহজালাল (রহ.) ও শাহপরাণ (রহ.) মাজার জিয়ারত করেন তিনি। জিয়ারত শেষে তিনি নগরীর একটি অভিজাত হোটেলে মধ্যাহ্নভোজ করেন এবং স্থানীয় সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। এ সময় সিলেট ছাত্রদলের বিদ্রোহী নেতারা মির্জা ফখরুলের সঙ্গে দেখা করেন এবং তাদের অভ্যন্তরিন দলীয় সমস্যা নিয়ে কথা বলেন। তবে মির্জা ফখরুলের সিলেট সফরকালে জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের কমিটির পদবীধারী কোন নেতাকর্মীর দেখা মিলেনি।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার দুপুরে সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আসেন বিএনপির শীর্ষ নেতা মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তাঁর সফরকে কেন্দ্র করে সিলেট ছাত্রদলের বিদ্রোহীরা শোডাউন করেন। সকাল থেকেই তারা ওসমানী বিমানবন্দরে অবস্থান নেয়। পরে মির্জা ফখরুল বিমানবন্দরে আসার পর সেখানে সিলেট বিএনপির শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে ফখরুলকে ¯^াগত জানান তারা। এরপর ভারপ্রাপ্ত মহাসচিবের সাথে সঙ্গে হযরত শাহজালাল (রহ.) মাজার মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করে পরবর্তীতে শাহপরান (র.)মাজার জিয়ারতেও অংশ নেন তারা। দুই মাজার জিয়ারত শেষে সিলেট ছাত্রদলের বিদ্রোহী নেতারা বিএনপির শীর্ষ নেতা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে নিয়ে নগরীর একটি হোটেলে ওঠেন। এ সময় হোটেলের বাহির ও ভেতরে অবস্থান নেন বিদ্রোহী পক্ষের নেতাকর্মীরা। এই সময় বিদ্রোহী ছাত্রদল নেতা হিসেবে পরিচিত সিলেট জেলা ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাফেক মাহবুব, কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সাবেক সদস্য মাহবুবুল হক চৌধুরী, জেলা ছাত্রদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শাকিল মুর্শেদ ও মহানগর বিএনপির সাবেক সমাজসেবা সম্পাদক রেজাউল করিম নাচন ও তাদের অনুসারীরা দেখা করেন মির্জা ফখরুলের সাথে।

এ সময় সিলেট বিএনপির সাবেক সভাপতি এমএ হক, জেলা বিএনপির আহবায়ক অ্যাডভোকেট নুরুল হক, মহানগর বিএনপির আহবায়ক ড. শাহরিয়ার হোসেন, সদস্য সচিব বদরুজ্জামান সেলিম, জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক আবুল কাহের শামীম, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রাজ্জাক, আলী আহমদ, রেজাউল হাসান কয়েস লোদী, আজমল বখত সাদেক ও সৈয়দ মঈনুদ্দিন সোহেল সহ জেলা ও মহানগর বিএনপি নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে, বিদ্রোহী ছাত্রদল নেতারা দিনভর নগরীতে অবস্থান নিলেও সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের কাউকে দেখা যায়নি। পদবীদারী কোন নেতা বিমানবন্দর বা শাহজালাল মাজারে যাননি। এমনকি তারা কেউ মির্জা ফখরুলকে স্বাগত জানাতেও যাননি।

দলের এমন শীর্ষ নেতার সিলেট সফরে পাশে না থাকায় কমিটির পদধারী ছাত্রনেতাদের নিয়ে ছাত্রদলের তৃনমুল নেতাকর্মীদের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। ত্যাগী ছাত্রদল নেতাকর্মীরা বলেন, এই কমিটি সম্পুর্নরুপে ব্যার্থ তাই মহাসচিবের সামনে ব্যার্থ মুখ দেখাবে কি করে এজন্য আসেনি। এছাড়া কমিটি ঘোষনার পর থেকে রাজপথে আন্দোলন সংগ্রাম ও কারাবরন সবকিছুই করেছে বিদ্রোহীরা। আর নতুন কমিটির কাজের মধ্যে ছিল বাসার সামনে ব্যানার নিয়ে ফটো শেষন ও কিছু ঘটলেই পত্রিকায় বিবৃতি দেয়া। এদিকে সিলেট সফরকালে কমিটির নেতাদের অনুপস্থিতি দৃষ্টি কেড়েছে মহাসচিবের। তিনি এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নিবেন বলেও প্রতিশ্রæতি দিয়েছেন সিলেট ছাত্রদলকে।

Print Friendly, PDF & Email