বিদ্যমান সংকট নিরসনে গণতান্ত্রিক সংবিধান প্রয়োজন

0
227

Zunayed Saki
ঢাকা: গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি বলেছেন, বর্তমান সংবিধানকে অবিকৃত রেখে গণতান্ত্রিক রাজনীতি ও রাষ্ট্র কখনোই সম্ভব নয়। তাই দেশের বিদ্যমান সংকট নিরসনে মুক্তিযুদ্ধের আকাঙ্ক্ষার ভিত্তি গণতান্ত্রিক সংবিধান প্রয়োজন। শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবে গণতান্ত্রিক সংবিধান সংগ্রাম কমিটি আয়োজিত ‘বিদ্যমান সংকট নিরসনে গণতান্ত্রিক সংবিধান প্রয়োজন’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
সাকি বলেন, বিএনপি বা আওয়ামী লীগ উভয় দলই নিজেদের মধ্যে আলোচনার মাধ্যমে সমঝোতায় আসার ক্ষমতা হারিয়ে ফেলেছে। তারা জনগণের জন্য কী করতে পারে সেটা এখন প্রশ্ন নয় বরং আমাদের সামনে নতুন রাজনৈতিক বাস্তবতা কী সেটাই প্রশ্ন হয়ে দাড়িয়েছে।
এখন নতুন রাজনৈতিক দিশা প্রতিষ্ঠিত করা দরকার এমন মন্তব্য করে তিনি বলেন, একটি রাজনৈতিক ভিশন নিয়ে সামনে না আগালে নতুন কোনো রাজনৈতিক বাস্তবতা আসবে না।
তিনি আরও বলেন, সংবিধানে জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকার সুরক্ষার বদলে তাকে সীমিত করার সাংবিধানিক ব্যবস্থা করা হয়েছে। এই সংবিধানের অধীনে সাংবিধানিক শাসনের নামে দেশে স্বৈরতান্ত্রিক কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠা হয়েছে।
গণতান্ত্রিক সংবিধান সংগ্রাম কমিটির সংগঠক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম বলেন, ‘সংবিধান যে জনগণের জীবন ধারণের দলিল আমাদের দেশে সেটা মানা হয় না। ৭২’র সংবিধানে জনগণের অধিকার নিশ্চিতের একটা ঘাটতি রয়ে গেছে। সংবিধানকে সংরক্ষণ করে যে ক্ষমতা প্রতিষ্ঠিত করা হয়েছে সেটা জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠার বিপক্ষে।
আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন লেখক ও কবি শহীদুল্লাহ ফরায়েজী, অধ্যাপক আহমেদ কামাল, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, অধ্যাপক আবুল কাশেম, মুক্তিযোদ্ধা মনিবুর রহমান প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email