বিভিন্ন গণমাধ্যমে শিবিরকে জড়িয়ে প্রকাশিত খবরের নিন্দা

0
914

ঢাকা: বিভিন্ন টিভি চ্যানেল ও অনালাইন নিউজ পোর্টালে ‘পাবনার ঈশ্বরদীতে ফাদার লুকের উপর হামলার ঘটনায় শিবির ক্যাডার গ্রেপ্তার’ উল্লেখ করে ছাত্রশিবিরকে জড়িয়ে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন খবর প্রকাশের তীব্র নিন্দা এবং প্রতিবাদ জানিয়েছে সংগঠনটি। এক যৌথ প্রতিবাদ বার্তায় ইসলামী ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি আবদুল জব্বার ও সেক্রেটারি জেনারেল মো. আতিকুর রহমান বলেন, প্রকৃত সত্যকে আড়াল করতেই পরিকল্পিত ভাবে ঈশ্বরদী সিসিডিবি প্রধান ফাদার লুক সরকারের উপর হামলার সাথে ছাত্রশিবিরকে জড়ানোর অপচেষ্টা করা হচ্ছে। এ ঘটনার সাথে ছাত্রশিবিরের দূরতম কোনো সম্পর্ক নেই দাবি করে নেতৃবৃন্দ বলেন, কোনো প্রকার তথ্য প্রমাণ ছাড়াই এমন ঢালাওভাবে সংবাদ পরিবেশন কার স্বার্থে তা আমাদের বোধগম্য নয়। শিবির নেতৃবৃন্দ বলেন, সিসিডিবি প্রধান ফাদার লুক সরকারের উপর গতকাল সোমবার সকাল ১০টায় ঈশ্বরদী এয়ারপোর্ট সংলগ্ন তার বাসায় হামলা করা হয়। এসময় হামলার কাজে ব্যবহৃত একটি মোটরসাইকেল (নং-ঢাকা মেট্রো-ট ১১- ৯০৫৪) আটক করা হয়। এই ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে আজ ওবাইদুল হক নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বিভিন্ন টিভি চ্যানেল এবং অনলাইন পত্রিকায় গ্রেপ্তারকৃত যুবক ‘শিবির ক্যাডার’ উল্লেখ করে প্রচার করা হচ্ছে। যা সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট এবং ভিত্তিহীন।

আমরা দৃঢ়ভাবে বলতে চাই গ্রেপ্তারকৃত ওবাইদুল হকের সাথে ইসলামী ছাত্রশিবিরের দূরতম কোনো সম্পর্ক নাই। নেতৃবৃন্দ বলেন, কোনো যাচাই বাছাই না করেই এমন একটি স্পর্শকাতর বিষয়ের সাথে উদ্দেশ্যে প্রণোদিতভাবে ছাত্রশিবিরকে জড়ানো হচ্ছে। ছাত্রশিবির সবসময় ধর্মীয় সম্প্রীতিতে বিশ্বাসী। সুদীর্ঘ পথ চলায় ধর্মীয় সম্প্রীতি বিরোধী এমন নিকৃষ্ট কোনো ঘটনার সাথে শিবিরের দূরতম সংশ্লিষ্টতার প্রমাণ কেউ করতে পরেনি। কিন্তু, কোনোপ্রকার তদন্ত ছাড়াই ইশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিমান কুমার দাসের এ ধরনের মন্তব্য সম্পূর্ণ বানোয়াট, ভিত্তিহীন এবং উদ্দেশ্য প্রণোদিত। নেতৃবৃন্দ বলেন, দায়িত্বশীল ব্যক্তির এ ধরনের অসংলগ্ন বক্তব্য এবং অপপ্রচারের ফলে প্রকৃত সত্য ঘটনা উদঘাটনে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হবে এবং প্রকৃত অপরাধীরা আড়ালেই থেকে যাবে। যা কোনোভাবেই কাম্য নয়। আমরা অবিলম্বে এই মিথ্যাচার বন্ধের দাবি জানাচ্ছি। একই সাথে সঠিক তদন্তের মাধ্যমে হত্যা চেষ্টায় জড়িতদের গ্রেপ্তার করে বিচারের আওতায় আনতে সরকারের প্রতি জোর দাবী জানাচ্ছি। নেতৃবৃন্দ এ ধরণের মিথ্যা ও ভিত্তিহীন প্রতিবেদন প্রকাশ থেকে বিরত থাকতে সংশ্লিষ্ট প্রতিবেদক ও গণমাধ্যমের প্রতি আহবান জানান। বিজ্ঞপ্তি

Print Friendly, PDF & Email