বিশিষ্টজনদের নিয়ে সিলেট মহানগর জামায়াতের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত

0
345

সিলেট: বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সাংবাদিক, আইনজীবি, শিক্ষক, পেশাজীবি ও নানান শ্রেণী পেশার মানুষের ব্যাপক উপস্থিতির মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হল সিলেট মহানগর জামায়াতের ইফতার মাহফিল। শুক্রবার নগরীর মালঞ্চ কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠিত ইফতার মাহফিলে জামায়াতে ইসলামী, বিএনপি, ২০ দলীয় জোটভুক্ত দল ছাড়াও বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
মাহফিল পূর্ব সংক্ষিপ্ত সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন, স্বাধীনতার ৪৬ বছর পর বাংলাদেশ আজ সবচেয়ে কঠিন সময় অতিবাহিত করছে। জাতির ঘাড়ে একদলীয় ও বাকশালী শাসন চাপিয়ে দেয়ার মাধ্যমে ক্ষমতাসীন অবৈধ সরকার গণতন্ত্রকে ছিন্নভিন্ন করে দিয়েছে। নতজানু পররাষ্ট্র নীতির কারণে দেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব আজ হুমকির মুখে। বাংলাদেশের সবুজ জমিনে ইনসাফ ভিত্তিক সমাজ বিনির্মানের প্রত্যয়ে দেশের গনমানুষের প্রিয় সংগঠন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী কাজ করে আসছে। আদর্শিক মোকাবেলায় ব্যার্থ হয়ে জামায়াতে ইসলামী ও ছাত্র শিবিরের উপর ইতিহাসের নিকৃষ্ঠতম জুলুম করা হচ্ছে। নিরপরাধ মজলুম শীর্ষ নেতাদের বিচারের নামে হত্যা করা হয়েছে। ক্রসফায়ারের নামে নিরীহ নেতাকর্মীদের হত্যা করা হচ্ছে। খুন, গুম, গনগ্রেফতার ও রিমান্ডের নামে নেতাকর্মীদের উপর চালানো হচ্ছে সীমাহিন জুলুম। দেশ জাতির যে কোন ক্রান্তিকালে জামায়াত অতন্দ্র প্রহরীর ভুমিকা পালন করে আসছে। মানবতার মুক্তি সনদ মহাগ্রন্থ আল কুরআন নাযিলের মাস মাহে রমজান থেকে শিক্ষা নিয়ে মানবতার কল্যাণে দেশ ও জাতিকে ঐক্যবদ্ধভাবে এগিয়ে আসতে হবে। ইনশাআল্লাহ স্বল্প সময়ের ব্যবধানে বাংলাদেশে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে জাতির সংকট নিরসন করা হবে। সকল প্রকার জুলুম নিপীড়ন সত্ত্বেও জাতির দুর্দিনে অতীতের ন্যায় জামায়াতে ইসলামী তার আদর্শিক কর্মপন্থা অব্যাহত রেখে যাবে।
সিলেট মহানগর জামায়াতের আমীর এডভোকেট এহসানুল মাহবুব জুবায়ের এর সভাপতিত্বে বিশিষ্টজনদের নিয়ে আয়োজিত ইফতার মাহফিল পুর্ব সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও সিলেট বিভাগীয় আঞ্চলিক দায়িত্বশীল অধ্যাপক ফজলুর রহমান। সিলেট মহানগর জামায়াতের সেক্রেটারী মাওলানা সোহেল আহমদের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত মাহফিলে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন-খেলাফত মজলিসের কেন্দ্রীয় সিনিয়র নায়েবে আমীর ভাষাসৈনিক অধ্যক্ষ মাসউদ খান, জামায়াতের কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও সাবেক এমপি অধ্যক্ষ মাওলানা ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী, সিলেট মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসাইন, সিলেট মহানগর জমিয়তের সভাপতি মাওলানা মনসুরুল হাসান রায়পুরী, জামায়াতের কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরা সদস্য ও সিলেট জেলা দক্ষিণের আমীর মাওলানা হাবিবুর রহমান, সিলেট জেলা উত্তরের আমীর হাফিজ মাওলানা আনোয়ার হোসাইন খান ও বিশিষ্ট আলেমে দ্বীন প্রিন্সিপাল মাওলানা আব্দুস সালাম আল মাদানী। মোনাজাত পরিচালনা করেন ইসলামী ঐক্যজোট এর সিলেট মহানগর সভাপতি মুফতি ফয়জুল হক জালালাবাদী।
মাহফিলে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সাংবাদিক, আইনজীবি, শিক্ষক, পেশাজীবি ও নানান শ্রেণী পেশার মানুষের বিপুল সংখ্যক মানুষ উপস্থিত ছিলেন। মাহফিলে বিশিষ্টজনদের মধ্য থেকে উপস্থিত ছিলেন-বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ লে: কর্ণেল (অব.) সৈয়দ আলী আহমদ, সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মুক্তাবিস-উন্-নূর, সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট শাহ আশরাফুল ইসলাম, দৈনিক জালালাবাদের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আজিজুল হক মানিক, সিলেট মহানগর জামায়াতের নায়েবে আমীর হাফিজ আব্দুল হাই হারুন ও মো: ফখরুল ইসলাম, সিলেট জেলা দক্ষিণের নায়েবে আমীর অধ্যক্ষ আব্দুল হান্নান ও বীর মুক্তিযোদ্ধা মতিউর রহমান, সিলেট জেলা উত্তরের নায়েবে আমীর সৈয়দ ফয়জুল্লাহ বাহার, দৈনিক জালালাবাদের নির্বাহী সম্পাদক আবদুল কাদের তাপাদার ও সহকারী সম্পাদক নিজাম উদ্দীন সালেহ, বিশিষ্ট আইনজীবী এডভোকেট ওবায়দুর রহমান, সিলেট মহানগর জমিয়তের সহ-সভাপতি মাওলানা মাহমুদুল হাসান, লেবার পার্টি সিলেট মহানগর সভাপতি মাহবুবুর রহমান খালেদ, বিজেপি সিলেট জেলা আহবায়ক মোজাম্মেল হোসেন লিটন, সিলেট জেলা দক্ষিণ জামায়াতের সেক্রেটারী মাওলানা লোকমান আহমদ, জেলা উত্তরের সেক্রেটারী মাওলানা ইসলাম উদ্দিন, জাতীয় পার্টি নেতা আব্দুল হাই কাইয়ুম, বিশিষ্ট চিকিৎসক ডা: আবুল হাশেম চৌধুরী, জৈন্তাপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব জয়নাল আবেদীন, সিলেট সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জঈন উদ্দিন, সিলেট মহানগর জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারী মো: আব্দুর রব, শাহজাহান আলী ও নুরুল ইসলাম বাবুল, অফিস সেক্রেটারী জাহেদুর রহমান চৌধুরী, সিলেট মহানগর জমিয়তের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আব্দুল মালিক চৌধুরী, জাগপার সিলেট মহানগর সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান আহমদ লিটন ও সিলেট জেলা সাধারণ সম্পাদক তারেক আহমদ বিলাস, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর হাজী রাজিক আহমদ, আব্দুল জলিল নজরুল ও এবিএম জিল্লুর রহমান উজ্জল, বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্র শিবির সিলেট মহানগর সেক্রেটারী আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ ও সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম, শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিবির সভাপতি নাসিম হোসেন, সিলেট জেলা পূর্ব সভাপতি হাবিবুল্লাহ দস্তগীর ও জেলা পশ্চিম সভাপতি শাফায়াত রহমান প্রমুখ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক ফজলুর রহমান বলেন, মানবতার মুক্তির সনদ মহাগ্রন্থ আল কুরআন নাজিলের মাস পবিত্র মাহে রমজান কুরআনের সমাজ বিনির্মাণের জন্য এক নিয়ামত হিসেবে কাজ করে। তাই রমজানের আলোকে ব্যক্তি, পরিবার, সমাজ ও রাষ্ট্র জীবনে কুরআনের আইন প্রতিষ্ঠার জন্য সবাইকে শপথ নিতে হবে।
সভাপতির বক্তব্যে এডভোকেট এহসানুল মাহবুব জুবায়ের বলেন, কুরআন নাজিলের মাস পবিত্র মাহে রমজানের শিক্ষা মানবজীবনে প্রতিফলন করে ইহকালীন মুক্তি ও পরকালীন সাফল্য পেতে সবাইকে কাজ করতে হবে। কুরআনের সমাজ বিনির্মাণে বাধা আসবেই। সব বাধার প্রাচীর মাড়িয়ে মানবতার কল্যাণে কাজ করার জন্য জামায়াতের ইসলামীর প্রতিটি জনশক্তিকে এগিয়ে যেতে হবে।

Print Friendly, PDF & Email