বিয়ানীবাজারে তিন পুত্রবধুকে যৌন নির্যাতনকারীর যন্ত্রণায় অতিষ্ট এলাকাবাসী

0
123

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিয়ানীবাজারের বহুল আলোচিত সেই তিন পুত্রবধুকে যৌন নির্যাতনকারী আব্দুল করিমের মামলাবাজীতে অতিষ্ট হয়ে উঠেছে স্থানীয় জনগণ। এমন অভিযোগ করেছন বিয়ানীবাজার উপজেলার যুক্তরাজ্য প্রবাসী এ.এম রশীদ। মঙ্গলবার সকালে সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের ড.রাগীব আলী মিলনায়তনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বাংলাদেশী বংশদ্ভূত বৃটিশ সরকারের রাজস্বখাতের কর্মকর্তা আব্দুর রশিদ জানান, আমার দাদা আব্দুল মালিক বৃটিশ রয়াল মার্চেন্ট নেভীতে কর্মরত থাকাবস্থায় আইরিশ থেকে আব্দুল করিম নামে এক বেওয়ারিশ শিশুকে বাংলাদেশে এনে লালন পালন করেন। পরবত্তীতে ২০০৬ সালে নিজের যৌন অক্ষম ছেলেকে তিনটি বিয়ে করিয়ে পুত্রবধুদের সাথে যৌন সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ার অপরাধে গ্রেফতার হন। এখন ঐ আব্দুর কমির দীর্ঘদিন থেকে আমাদের নানা ভাবে হয়রানী করছেন।

তিনি জানান, হয়রানির অংশ হিসেবে সাম্প্রতিক সমেয়ে আব্দুল করিম আমাদের নামে বিয়ানীবাজার থানায় একটি মিথ্যা ও কাল্পনিক অভিযোগ দায়ের করেছেন। প্রকৃত পক্ষে আমাদের সাথে আব্দুল করিমের ভূমি সংক্রান্ত বিরোধ রয়েছে। আর ভূমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরেই তিনি আমাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অপপ্রচার করে ব্যর্থ হয়ে এখন মামলা দিয়ে হয়রানির চেষ্টা করছেন।

অন্যদিকে যে তিনটি অসহায় মেয়েকে পুত্রবধুর নাটক সাজিয়ে তাদের জীবনকে বিপন্ন করেছে সেই মেয়েরা আজও বিচার পায়নি। শুধু আমার পরিবার কিংবা এই তিন মেয়ের পরিবারই নয়, এলাকার অন্যান্য গরীব ও অসহায় ব্যাক্তিদের তিনি হয়রানি করে যাচ্ছেন। এমতাবস্থায় আমরা এই চরিত্রহীন-লম্পট আব্দুল করিমের হয়রানী থেকে মুক্তি। চাই।

এসময় উপস্থিত ছিলেন এই গ্রামের বাসিন্ধা ও আব্দুর করিমের হয়রানীর শিকার মেহেদী হাসান কবির, দুলাল আহমদ, মোহাম্মদ আলী, নজরুল ইসলাম, রুহুল আমিন প্রমূখ।

Print Friendly, PDF & Email