বেগম জিয়ার লন্ডন সমাবেশ আজ, গোপনীয়তায় হতাশ তৃণমূল আর সাধারণ মানুষ

0
144

সাইফুর পারভেজ লন্ডন থেকেঃ লন্ডনে অবস্থানরত বিএনপির চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বহুল আলোচিত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে রবিবার। তবে কোথায় অনুষ্ঠিত হবে, তা অনুষ্ঠান শুরুর ১৬ ঘন্টা আগ পর্যন্ত জানেনা যুক্তরাজ্যের কোন মিডিয়া কিংবা বিএনপির সাধারণ নেতাকর্মীরা। এতে তৃণমূল এবং সাধারণ মানুষের মাঝে চরম ক্ষোভ ও অসন্তোষ দেখা গেছে।সভাকে সফল করতে দফায় দফায় বৈঠকে বসেছে যুক্তরাজ্য বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতারা। প্রতিটি বৈঠকে আলোচিত হয়েছে সমাবেশের খরছ নিয়ে। তবে উপস্থিত নেতাদের আগ্রহ ছিল কোথায় কখন অনুষ্ঠিত হবে বেগম জিয়ার সভা। যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের কাছ থেকে এখনো পরিস্কার কোন উত্তর পাননি বিএনপি নেতাকর্মীসহ মিডিয়া কর্মীরা। বারবার এ বিষয়ে বিএনপি নেতাদের সাথে যোগাযোগ করা হলেও তারা জানেন না বলে জানিয়েছে। লন্ডন সময় শনিবার রাত ১টা পর্যন্ত কোন ধরনের দাওয়াত পান বাংলা মিডিয়ার সংবাদ কর্মীরা।

এ ব্যাপারে চ্যানেল এস এর চীপ রিপোর্টার মোহাম্মদ জুবায়ের, এটিএন বাংলার সিনিয়র রিপোর্টার মোস্তাক আহমদ বাবুল, বেতার বাংলার নিউজ এডিটর সৈয়দ শাহ সেলিম আহমদ ও এস এ টিভির হেফাজুল করিমের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারাও জানেন না বলে জানিয়েছেন। তবে কি প্রথম দফার মত দ্বিতীয় দফাও সমাবেশ বাতিল হচ্ছে এ নিয়ে সংশয়ের সৃষ্টি হয়েছে নেতাকর্মীদের মধ্যে। একটি সূত্র জানিয়েছে সবকিছুই হচ্ছে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যানের সরাসরি নির্দেশে। অনেক ক্ষেত্রে যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি কিংবা সাধারণ সম্পাদকও জানেন না কোথায় কি হচ্ছে, কি হবে। তবে সবকিছুই হচ্ছে যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগ যাতে সমাবেশ স্থলে প্রতিবাদ জানাতে না পারে সেই কৌশলের অংশ হিসেবে। এর আগেও বেগম খালেদা জিয়া যখন লন্ডনে আসেন সেদিনও এমন লোকচুরি করা হয়েছিল। সেদিন সফল হয়েছিলেন তারেক রহমান। তবে এবার যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগ বেশ তৎপর। তারা আগামীকাল যুক্তরাজ্য বিএনপি আয়োজিত সম্ভাব্য সমাবেশস্থল পার্ক প্লাজা রিবার ব্যাংক হোটেলের সামনে প্রতিবাদ সমাবেশের ডাক দিয়েছে। এতে শরিক হতে নেতা কর্মীদের আহবান জানিয়েছেন যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরিফ।

এদিকে বিএনপি সূত্র জানায়, ঈদের দিনে অনুষ্ঠিত যুক্তরাজ্য বিএনপি আয়োজিত বেগম জিয়ার ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে বিশৃংখলা ও হট্টগোলের কারণে এবারের সভা আয়োজনে শৃংখলা ও নিরাপত্তার বিষয়টি নিয়ে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছে যুক্তরাজ্য বিএনপি। এজন্য সমাবেশস্থলকে ঘিরে মোতায়েন করা হচ্ছে বিপুল সংখ্যক নিরাপত্তকর্মী। আমন্ত্রণপত্র ছাড়া সভায় কাউকে প্রবেশ করতে না দেয়ার পরিকল্পনাও করেছে যুক্তরাজ্য বিএনপি।

Print Friendly, PDF & Email