ব্যবসায়ীকে খুন করে পালানোর সময় ২ তরুণী আটক

0
132

রাঙামাটি: রাঙামাটিতে মো. লিটু (৩২) নামে এক ঝুট ব্যবসায়ীকে খুন করে পালানোর সময় ২ তরুণীসহ তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। আটকরা হলেন, নিহতের ব্যবসায়িক সহযোগী আমজাদ হোসেন শাওন (২৭), তার স্ত্রী ছায়েরা হক মৌ (২০) ও শ্যালিকা ফারিয়া হক পদ্মকে (১৭)।

শুক্রবার সকালে শহরের বনরুপা এলাকা থেকে তাদের আটক করে পুলিশ।  এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে শহরের মোটেল জজ নামে একটি আবাসিক হোটেলে খুনের এই ঘটনা ঘটে। নিহত ব্যবসায়ী লিটু চট্টগ্রামের হালিশহর এলাকার আবদুল মজিদ মিয়ার ছেলে। পুলিশের দেয়া তথ্য মতে, বৃহস্পতিবার রাত নয়টার দিকে একটি প্রাইভেটকার যোগে ৪ জন শহরের মোটেল জজ নামে আবাসিক হোটেলে রুম ভাড়া নেন।  সকালে তারা প্রাইভেট কারটি নিয়ে চলে যাওয়ার সময় বনরূপা এলাকায় গাড়িটি ফুটপাতে একাধিকবার ধাক্কা খেলে পুলিশ গাড়িটি আটক করে।  পরে কথাবার্তার এক পর্যায়ে পুলিশ গাড়িটি ছেড়ে রাজি হয়।  কিন্তু ঠিক সেই মুহূর্তে খবর আসে মোটেল জজ নামে আবাসিক হোটেলে একজন লোক খুন হয়েছেন।  আর তার আগেই নিহত ব্যক্তির অপর তিন সঙ্গি প্রাইভেট কারটি নিয়ে চলে গেছেন।  এমন খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ওই গাড়িটিসহ তিনজনকে আটক করে পুলিশ।  পরে আটক তিনজনকে ঘটনাস্থল নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে হোটেলের লোকজন আটক ওই তিনজনকে নিহত ব্যক্তিসহ একসঙ্গে হোটেলে ওঠেন বলে শনাক্ত করেন।

রাঙামাটি কোতোয়ালি থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল রশীদ জানান, আমজাদ হোসেন শাওন প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ওই খুনের ঘটনায় জড়িত থাকার বিষয়টি স্বীকার করেছেন।  শাওন নিহত লিটুর ব্যবসায়িক পার্টনার বলেও স্বীকার করেছেন।  খুনের দায়ে আমজাদ হোসেন শাওনসহ আটক তিনজনকে জেলহাজতে রাখা হয়েছে। নিহতের লাশ রাঙ্গামাটি জেনারেল হাসপাতালে পোস্টমর্টেম করা হয়েছে।  নিহতের পরিবারের লোকজনকে আসতে খবর দেয়া হয়েছে।  তারা এলে মামলার কাজ সম্পন্ন করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email