বড়দিন সার্বজনীন ধর্মীয় উৎসব: খালেদা জিয়া

0
202

ঢাকা: খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শুভ বড়দিন উপলক্ষে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া তার এক বাণীতে বলেছেন, আমি এই দিনে বাংলাদেশসহ বিশ্বের সকল খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বীকে জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। তাদের সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করি। শনিবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বাণীতে তিনি এ কথা বলেন। বাণীতে বেগম জিয়া বলেন, শুভ বড়দিন একটি সার্বজনীন ধর্মীয় উৎসব। আর প্রতিটি ধর্মীয় উৎসবের অন্তর্লোক হচ্ছে সম্প্রীতি, সহাবস্থান ও শুভেচ্ছা। খালেদা জিয়া বলেন, সত্য, ন্যায় ও করুণার পথপ্রদর্শক মহান যিশুখ্রিষ্ট এদিনে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। বিশ্বের সকল খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বীর কাছে তাই এ দিনটি অত্যন্ত মহিমান্বিত ও মর্যাদাপূর্ণ।
বড়দিনের সকল কর্মসূচির সর্বাঙ্গীণ সাফল্য কামনা করে তিনি বলেন, সকল ধর্মের মর্মবাণী শান্তি ও মানবকল্যাণ। যুগে যুগে মহামানবগণ মানুষের সৎ পথে চলার দিশারী হয়েছিলেন। মানুষকে অনুপ্রাণিত করেছিলেন ন্যায় ও কল্যাণের পথে চলতে। মহান যিশুখ্রিষ্টও একইভাবে তাঁর অনুসারীদের সৎকর্ম ও ন্যায় প্রতিষ্ঠায় উদ্বুদ্ধ করে গেছেন।
বাণীতে সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী বলেন, মানুষ হিসেবে আমাদের কর্তব্য দেশ, সমাজ ও মানুষের কল্যাণে যার যার অবস্থান থেকে কাজ করে যাওয়া। হিংসা-বিদ্বেষ পরিহার হরে সমাজে শান্তি প্রতিষ্ঠা এবং সব ধরনের অন্যায়-অবিচার প্রতিরোধে ব্রতী হওয়া সকলের কর্তব্য। মহামানবদের জীবনদর্শন যথাযথভাবে উপলব্ধি করতে পারলেই মানবকল্যাণে নিজেদেরকে সম্পৃক্ত করা সম্ভব। আর তাহলেই স্রষ্টার সন্তুষ্টি অর্জনে আমরা সক্ষম হবো।

Print Friendly, PDF & Email