ভারতে ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথ রফতানির সিদ্ধান্ত

0
168

Meeting Minister
ঢাকা: ভারতে ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথ রফতানির সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। সোমবার সচিবালায়ে মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এ অনুমোদন দেয়া হয়। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।বাংলাদেশ থেকে প্রতিবেশী দেশটিতে ১০ জিবিপিএস (গিগাবাইট পার সেকেন্ড) ব্যান্ডউইথ রপ্তানির অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। এ লক্ষ্যে ভারতের বিএসএনএল এবং বিএসসিসিএল’র মধ্যে লিজিং অব ইন্টারন্যাশনাল ব্যান্ডউইথ ফর ইন্টারনেট অ্যাট আখাউড়া শীর্ষক চুক্তি স্বাক্ষরের প্রস্তাব অনুমোদন করা হয়েছে।
মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো. মোশাররফ হোসাইন ভুঁইঞা এক ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের জানান, বাংলাদেশে বর্তমানে দুইশ জিবিপিএস ক্ষমতাসম্পন্ন সাবমেরিন ক্যাবল রয়েছে। এর মধ্যে মাত্র ৩০ জিবিপিএস বাংলাদেশ ব্যবহার করে। বাকি ১৭০ জিবিপিএস অব্যবহৃত। আর সেখান থেকেই মাত্র ১০ জিবিপিএস ব্যান্ডউইথ রপ্তানি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। তবে এর মাত্রা ৪০ জিবিপিএস পর্যন্ত বাড়ানো যাবে। এ চুক্তির মেয়াদ হবে তিন বছর।
তিনি জানান, কক্সবাজার থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া হয়ে আখাউড়া দিয়ে ইন্টারনেট রফতানি করবে বাংলাদেশ। এরপর সেখানে থেকে ভারত নিজেদের সুবিধা মতো তা নিয়ে যাবে।
জানা গেছে, বাংলাদেশের এ ব্যান্ডউইথ ভারতের আসাম, ত্রিপুরা, মেঘালয়, মিজোরাম, নাগাল্যান্ড, মনিপুর ও অরুণাচল রাজ্যে ব্যবহৃত হবে।
মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, ভারতের কাছে ১০ জিবিপিএস ব্যান্ডউইথ রপ্তানি করে বাংলাদেশ ৯ কোটি ৪২ লাখ টাকা মূল্যের বৈদেশিক মুদ্রা আয় করবে। এ টাকার চার ভাগের এক অংশ দিয়ে বিটিসিএলের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন দেয়া যাবে।
মন্ত্রিপরিষদ সচিব আরো জানান, আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে দ্বিতীয় সাব-মেরিন ক্যাবল প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে বাংলাদেশ দেড় হাজার জিবিপিএস ব্যান্ডউইথ ক্ষমতাসম্পন্ন হবে।

Print Friendly, PDF & Email